Zika Virus in Kerala: সাবধান! করোনার মাঝে জিকার হানা, কেরলে মহিলার শরীরে ভাইরাসের খোঁজ

করোনা ভাইরাসের প্রথম সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল কেরলে। এবার সেখানেই সন্ধান পাওয়া গেল জিকা ভাইরাসের।

করোনা ভাইরাসের প্রথম সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল কেরলে। এবার সেখানেই সন্ধান পাওয়া গেল জিকা ভাইরাসের।

  • Share this:
#তিরুবনন্তপুরম:  এবার জিকা (Zika) ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া গেল কেরলে। এই প্রথম কোনও ব্যক্তির দেহে জিকা ভাইরাস মিলল। সেখানকার স্বাস্থ্য মন্ত্রী বীণা জর্জ (Veena George) এই খবর জানিয়েছেন। জিকা ভাইরাস কী ভাবে ছড়ায়? এটি একটি মশা বাহিত রোগ। মশার কামড় থেকে এই রোগ ছড়িয়ে পড়ে। এর বাহক এডিস মশা। দিনের বেলায় সাধারণত এই মশা কামড় দেয়। চিকুনগুনিয়া (Chikungunya) রোগের মতো একই উপসর্গ দেখা যায় জিকা ভাইরাসের ক্ষেত্রে। সাধারণত জিকা ভাইরাসের ক্ষেত্রে ভয়াবহ শারীরিক কোনও ক্ষতি হয় না। তবে যদি কোনও গর্ভবতী মহিলার ক্ষেত্রে জিকা ভাইরাসের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায় তাহলে ইনফেকশন হতে পারে। যৌন ক্রিয়াকলাপের মাধ্যমে ও রক্তের মাধ্যমে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। কোভিড ১৯ ভাইরাস এখনও যায়নি, এবার জিকা ভাইরাসের উপস্থিতি সমস্যার কারণ তো বটেই। করোনা ভাইরাসের ক্ষেত্রে প্রথম সন্ধান মিলেছিল কেরলে, এবার সেই একই রাজ্যে সন্ধান পাওয়া গেল জিকা ভাইরাসের। জানা গিয়েছে ২৪ বছর বয়সী এক গর্ভবতীর দেহে ওই ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। তাঁর বাড়ি পারাস্সালা এলাকায়। তিরুবনন্তপুরমের একটি হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলছে। গতমাসের ২৮ তারিখ জ্বর অনুভব করেন ওই মহিলা। সঙ্গে মাথা ব্যথা ও চামড়ায় লাল লাল দাগ দেখা যায়। চিকিৎসকদের সন্দেহ হতেই তাঁর টেস্ট করানো হয়। এবং প্রাথমিক রিপোর্টে জিকা ভাইরাসের উপস্থিতি মেলে তাঁর শরীরে। এর পর বিষযটি নিয়ে নিশ্চিত হতে পুণের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ভাইরোলজিতে (National Institute of Virology) তাঁর নমুনা পাঠানো হয়। যদিও শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে ওই মহিলার শারীরিক অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল। এবং ওই মহিলা সন্তানের জন্মও দিয়েছেন। এখনও পর্যন্ত ওই এলাকার ১৯ জনের নমুনা পাঠানো হয়েছে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ভাইরোলজিতে। তবে এখনও পর্যন্ত কতজনের রিপোর্ট পজিটিভ আছে তা নিশ্চিত করে NIV-র তরফে কিছু জানানো হয়নি। এদিকে জিকা ভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হতেই তৎপর সেখানকার স্বাস্থ বিভাগ। পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে না বেরিয়ে যায় তার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছে তারা। সমস্ত পদ্ধতি মেনে জিকা ভাইরাস দূর করার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসাররা ওই এলাকা পরিদর্শন করে এসেছেন। প্রতিটি জেলাকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। যে কোনও রকম পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলে দেওয়া হয়েছে।
Published by:Suman Majumder
First published: