হঠাৎ মোদি শাহের শরণে যোগী! জিতিন-কাঁটায় অস্তিত্ব সংকট?

মোদির কাছে ছুটলেন যোগী আদিত্যনাথ। হঠাৎ তৎপরতায় প্রশ্ন।

জোড়া বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তার মূল কারণ কড়া নাড়ছে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দিন কয়েক আগেই জন্মদিন গিয়েছে যোগী আদিত্যনাথের। জন্মদিনে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শুভেচ্ছাবার্তা এলেও একটি শব্দও খরচ করেননি নরেন্দ্র মোদি। তখনই নতুন জল্পনার জন্ম,  মোদি-যোগী দূরত্ব কি বাড়ছে? আর এই ঘটনাপ্রবাহেই নয়া মোড় জিতিন প্রসাদ কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতে। এবার তড়িঘড়ি দুদিনের দিল্লি সফরের ছুটলেন যোগী আদিত্যনাথ। আজ বৃহস্পতিবার ও আগামিকাল শুক্রবার তিনি দেখা করবেন নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহের সঙ্গে। এই জোড়া বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। তার মূল কারণ কড়া নাড়ছে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। যোগী কি অস্তিত্ব সংকটে ভুগছেন, প্রশ্ন উঠছে।

    প্রশ্নটা মূলত যোগীর পারফরম্যান্স নিয়ে। সেই হাথরাস কাণ্ড থেকে শুরু করে করোনা মোকাবিলা, একের পর এক সমালোচনার মুখে পড়েছেন যোগী। এমনকি দলের বা প্রশাসনের অন্দরেও তাকে নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে। মোদি-শাহ অবশ্য এই নিয়ে আলাদা করে কোনও নেতিবাচক মন্তব্য করেননি বরং মুখ্যমন্ত্রীর মুখ তিনিই, সেই বার্তাই দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাতেও যোগী সন্তুষ্ট নন বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

    গত সপ্তাহেই বিজেপির সহ-সম্পাদক তথা উত্তরপ্রদেশের পর্যবেক্ষক রাধামোহন সিং যোগী রাজ্যের রাজ্যপাল আনন্দীবেন প্যাটেল এবং স্পিকার হৃদয় নারায়ণ দীক্ষিতের সঙ্গে দেখা করেন। তখনই জল্পনা চরমে ওঠে। বিজেপি কি বড় কোনও রদবদলের পথে হাঁটছে  উত্তরপ্রদেশে , এই প্রশ্ন উড়িয়ে দিয়েছিলেন রাধামোহন সিং। তখন তিনি বলেন, এটি একটি সৌজন্য সাক্ষাৎ ছিল। কিন্তু জল্পনাতে থেমে থাকেনি। বিশেষত জিতিন প্রসাদ ফ্রেমে চলে আসার পর নতুন গুজব চাউর হচ্ছে।

    দল তাঁকে ঠিক কোন ভূমিকায় দেখতে চাইছে তাই নিয়ে নানা মুনির নানা মত। উত্তরপ্রদেশের ব্রাহ্মণ ভোট জোগাড় করতে যেতেন প্রসাদ বড় ট্রাম্পকার্ড হতে পারে বিলক্ষণ জানে বিজেপি। সে ক্ষেত্রে কি যোগী বৃত্তের ডানা ছাঁটা হতে পারে? এই প্রশ্নে মুখর দেশের রাজনৈতিক মহল। আর সেই কারণেই এত তাৎপর্যপূর্ণ যোগীর দিল্লি গমন। প্রশ্ন আরও আছে। সূত্রের খবর বাংলার ভোট বিপর্যয় থেকে শিক্ষা নিয়ে অনেক আগে থেকেই স্ট্র্যাটেজি ঠিক করার কথা ভাবছে বিজেপি। দলের শক্তি এবং দুর্বলতা দুইই যাচাই করে দেখতে চান পর্যবেক্ষকরা। তা হলে সরেজমিনে তদন্ত শুরু হওয়ার আগেই কি যোগী নিজের রিপোর্ট কার্ড নিয়ে দিল্লি ছুটলেন, উত্তর জানতে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে

    Published by:Arka Deb
    First published: