কী সাংঘাতিক! ত্বকে জেল্লা আনতে মেখেছিল 'হোম মেড' প্যাক, মুখটাই এক্কেবারে হলুদ হয়ে গেল তরুণীর! দেখুন...

কী সাংঘাতিক! ত্বকে জেল্লা আনতে মেখেছিল 'হোম মেড' প্যাক, মুখটাই এক্কেবারে হলুদ হয়ে গেল তরুণীর! দেখুন...
ত্বকে জেল্লা আনতে মেখেছিল 'হোম মেড' প্যাক, মুখটাই এক্কেবারে হলুদ হয়ে গেল তরুণীর! সংগৃহীত ছবি।

স্কিনে 'গোল্ডেন গ্লো' ফেরাতে হলুদের সঙ্গে ভেষজ একাধিক উপকরণ মিশিয়ে 'হোম মেড' প্যাক বানিয়েছিলেন তরুণী। কিন্তু তার যে এমন ভয়ানক পরিণতি হবে, তা তিনি স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেননি।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: স্কিনে 'গোল্ডেন গ্লো' ফেরাতে হলুদের সঙ্গে ভেষজ একাধিক উপকরণ মিশিয়ে 'হোম মেড' প্যাক বানিয়েছিলেন তরুণী। কিন্তু তার যে এমন ভয়ানক পরিণতি হবে, তা তিনি স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেননি। প্যাক শুকিয়ে যাওয়ার পরে, সেই প্যাক মুখ থেকে তুলতেই পাকাপাকি হলুদ হয়ে গেল তরুণীর মুখ। স্কটল্যান্ডের বাসিন্দা জনপ্রিয় টিকটক স্টারের সঙ্গে ঘটা এই ঘটনা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে তিনি এই ঘটনা শেয়ার করেছেন তাঁর ফলোয়ারদের সঙ্গে।

    Ladbible-র তথ্য অনুযায়ী, স্কটিশ টিকটক স্টার লড়েন রেনি সম্প্রতি বাড়িতেই মাস্ক তৈরি করেন মুখের জেল্লা ফিরিতে আনার জন্য। সেই প্যাকে অন্যান্য উপাদানের সঙ্গে পরিমাণমতো হলুদ মিশিয়েছিলেন। সেই প্যাক নিশ্চিন্তে মুখে মেখে নেন। কিন্তু প্যাক শুকিয়ে যেতেই নজরে আসে হলুদ হয়ে গিয়েছে তাঁর মুখ। রেনি তাঁর ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্মে তাঁর ১৭ হাজার ফলোয়ারকে জানান, 'হোম মেড ওই মাস্ক সারা মুখে মেখে নিয়েছিলাম। ঠোঁটের চারিদিকেও লাগিয়েছি সমানুপাতিক হাতে। ঠিক যেমনটা অনলাইনে পেয়েছিলাম। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই যে হাত দিয়ে মাস্ক তৈরি করেছি, সেই হাত গাঢ় হলুদ হয়ে যায়। তাতেই চমকে যাই।যখন মুখ থেকে প্যাক তুলি, তখন মুখটা চাঁদের মতো দেখাচ্ছিল।'

    'হোম মেড' প্যাক মাখার পরে তরুণীর মুখের অবস্থা। সংগৃহীত ছবি। 'হোম মেড' প্যাক মাখার পরে তরুণীর মুখের অবস্থা। সংগৃহীত ছবি।

    রেনি The Sun-কে জানিয়েছেন, অনেকবার ধুয়েছি মুখ এবনহ হা। কিন্তু কোনভাবেই সেই হলুদ দাগ যায়নি। হলদে ভাব থেকেই গিয়েছিল। টিকটক স্টারের কথায়, "সেদিন বাবার সঙ্গে শপিংয়ে যাওয়ার জন্যই স্কিনের যত্ন নিচ্ছিলাম। কিন্তু তারপরে যা ঘটেছে, তা আর বলার মতো নয়। কিন্তু বাবার সঙ্গে শপিং করতে গিয়েছিলাম। তবে মুখের হলুদ ভাব ঢাকার জন্য রীতিমতো চড়া মেক-আপ করতে হয়েছিল।"

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: