মর্মান্তিক...ট্রেনের ধাক্কায় ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছে মা-২ দিদির শরীর, পাশে বসে চিৎকার করে কাঁদছে একরত্তি

মর্মান্তিক...ট্রেনের ধাক্কায় ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছে মা-২ দিদির শরীর, পাশে বসে চিৎকার করে কাঁদছে একরত্তি

ট্রাকে বসে কাঁদছে শিশুটি (সংগৃহীত ছবি)

মোবাইল ফোনের কললিস্টের সূত্র ধরে মহিলা এবং তাঁর দুই সন্তানের পরিচয় জানা যায়। উদ্ধার করা হয়েছে শিশুটিকে।

  • Share this:

    নয়াদিল্লি: ট্রেনের ধাক্কায় ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছে মা আর দুই দিদির শরীর। পাশে পড়ে চিৎকার করে কাঁদছে এক বছরের দুধের সন্তান। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীতে। শিশুটিকে উদ্ধার করে আরপিএফ জওয়ানরা।

    বৃহস্পতিবার ভোর ৩.৪৫ মিনিট নাগাদ খবর আসে উত্তর-পশ্চিম দিল্লির মান্ডাওয়ালি এলাকায় ট্রেন লাইনের পাশে এক মহিলা-সহ দুই শিশু কন্যার দেহ ছিন্নভিন্ন অবস্থায় পড়ে রয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ । তবে একরত্তি শিশুটিকে দেখতে পাননি কেউ। পুলিশ কর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখতে পান রেল লাইনের ধারে মায়ের দেহের পাশে বসে চিৎকার করে কাঁদছিল সে।

    রেল পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  ঘটনাস্থল থেকে একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার হয়।  তদন্তে নেমে মোবাইল ফোনের কললিস্টের সূত্র ধরে মহিলার পরিচয় উদ্ধার হয়।  জানা গিয়েছে, মৃতা ওই মহিলার নাম কিরণ(৩০) । মান্ডাওয়ালি এলাকাতেই থাকতেন। পেশায় রিকসা চালক স্বামীর সঙ্গে অশান্তি করে এদিন সন্তানদের নিয়ে আত্মঘাতী হন তিনি। কিন্তু ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় একরত্তি। পুলিশ জানতে পেরেছে, মৃত দুই কন্যা সন্তানের মধ্যে একজনের বয়স ৫ আর একজনের ৬ বছর।

    এদিনে শিশুটিকে উদ্ধার করে তাকে রেলের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় শারীরিক পরীক্ষার জন্য। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শিশুটি সুস্থ রয়েছে। মহিলার স্বামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পেরেছে, এ দিন রিকসা চালিয়ে বাড়ি ফিরে তিনি বাড়িতে কাউকে দেখে পাননি। পরেরদিন স্ত্রীর মৃত্যুর খবর আসে। পুলিসের অনুমান, পারিবারিক অশান্তির জেরেই আত্মহননের পথ বেছে নেন ওই মহিলা।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: