Covid Vaccine: ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, কেন? জানুন চিকিৎসকদের মত

Covid Vaccine: ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, কেন? জানুন চিকিৎসকদের মত

হার্ড ইমিউনিটি গঠনে দেশের অন্তত ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকাকরণের আওতায় আনতে হবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের! কিন্তু এই অবস্থায় ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা সামনে আসছে--

হার্ড ইমিউনিটি গঠনে দেশের অন্তত ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকাকরণের আওতায় আনতে হবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের! কিন্তু এই অবস্থায় ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা সামনে আসছে--

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  ফের ভয়াবহ হয়ে উঠেছে করোনা ভাইরাস! করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ইতিমধ্যেই বেশামাল গোটা দেশ! দেশজুড়ে টিকাকরণ অভিযানের তৃতীয় পর্যায় চলছে। হার্ড ইমিউনিটি গঠনে দেশের অন্তত ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকাকরণের আওতায় আনতে হবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের! কিন্তু এই অবস্থায় ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা সামনে আসছে--

    Sanjay Gandhi Post Graduate Institute of Medical Sciences (SGPGIMS)-এর ডিরেক্টার সঞ্জয় গান্ধী ও তাঁর স্ত্রী, দুজনেরই করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার পর কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে। লখনৌতেও করোনা টিকা নেওয়ার পরেও আক্রান্ত হন প্রায় ৪০ জন চিকিৎসক। একই ঘটনা ঘটেছে দিল্লির এইমস ও শ্রী গঙ্গা রাম হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে। উত্তরপ্রদেশের এক চিকিৎসক যিনি গত বছর করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন, এ'বছর ভ্যাকসিনের দুটো ডোজ নেওয়ার পর ফের একবার মারণ ভাইরাসের কবলে পড়েছেন। King George’s Medical University (KGMU)-র ভাইস চাসন্সেলর বিপিন পুরি করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার ১১ দিনের মাথায় করোনায় আক্রান্ত হন।

    কিন্তু কেন ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা সামনে আসছে? প্রথমত ঠিকমতো ভ্যাকসিন দিতে না পারা। ভ্যাকসিন যদি সঠিক তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা না হয়, হাতের সঠিক জায়গায় দেওয়া না হয়, তাহলে তার কার্যকারিতা নষ্ট হয়ে যায়।

    চিকিৎসকদের মতে, করোনা ভ্যাকসিন হল অ্যান্টিজেন যা আমাদের শরীরে ভাইরাসের আক্রমণ রুখতে অ্যান্টিবডি উৎপাদন করে। কিন্তু এই অ্যান্টিবডি তৈরি হতে সময় লাগে। কোভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার ৪ সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে। এই দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার আরও দুই সপ্তাহ বাদে দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি হওয়ার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। কোভিশিল্ড-এর ক্ষেত্রে প্রথম ডোজের ছয় থেকে আট সপ্তাহ পরে দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে। এর আরও ২ সপ্তাহ বাদে শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হবে।

    ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার পর করোনা সংক্রমিত কোন ব্যক্তির সংস্পর্শে আসলে সংক্রমণের আশঙ্কা রয়ে যায়।

    শরীরের রোগ প্রতোরোধ ক্ষমতা বা ইম্যিউনিটি ভাল না হলে ভ্যাকসিন নেওয়ার পরেও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়

    বয়স্কদের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন নেওয়ার পরেও সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: