বিজেপি হটানোর 'শপথ' রাঁচিতে

বিজেপি হটানোর 'শপথ' রাঁচিতে

ঝাড়খণ্ডের মাটিতে অবিজেপি দলগুলির মহাসমাবেশ

  • Share this:

SOURAV GUHA

#রাঁচি: শপথ অনুষ্ঠান যেন বিজেপি বিরোধী মহাসমাবেশ। রাঁচির রাস্তা এখন সবুজ ঝান্ডা,  পোস্টার ব্যানার দিয়ে মোড়া।  আর প্রণব  থেকে অরবিন্দ কেজরিওয়াল,  রাহুল থেকে মমতা,  মায়াবতী ,  দেবেগৌড়া,  অখিলেশের পোস্টারে ছেয়ে গিয়েছে।। রবিবার দ্বিতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন  ঝাড়খন্ড  মুক্তি মোর্চার নেতা হেমন্ত সোরেন।  রবিবার,  রাঁচির মোরাবাদী ময়দানে হবে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। তারই প্রস্তুতি এখন শহর জুড়ে। কয়েকদিন আগেই ঝাড়খণ্ডের ক্ষমতাসীন বিজেপিকে হারিয়েছে হেমন্তর মহাগঠবন্ধন । বিজেপি বিরোধী  দেশের সব দলই সেদিন উছ্বাস আর শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দিয়েছিল ট্যুইটার। এবার তাদের ফিরতি উপহার দেওয়ার পালা। কে নেই শপথ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ  তালিকায়। কংগ্রেস শিবির থেকে  রাহুল,  প্রিয়ঙ্কার সঙ্গেই তৃণমূলের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ এছাড়া অখিলেশ,  তেজস্বী,  দেবেগৌড়ার মতো হেভিওয়েট নেতা-মন্ত্রী আমন্ত্রিত শপথ অনুষ্ঠানে।  বাদ পড়েননি অধীর চৌধুরী,  মানিক সরকার,   সীতারাম ইয়েচুরিরাও।  সব মিলিয়ে বিজেপি বিরোধী  দল ও নেতাদের একমঞ্চে এনেই  বিজেপি ও নরেন্দ্র  মোদীকে  বিঁধতে চাইছেন হেমন্ত। সদ্য বিজেপির হারের পর ঝাড়খণ্ডের মাটিতে দাঁড়িয়ে  বিজেপিকে একহাত নেওয়ার সুযোগ ছাড়ছেন না কেউই। রাঁচির মোরাবাদী ময়দানে বিজেপির বিরূদ্ধে সুর চড়াতে প্রস্তুত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।
ভোটের ফলাফল  বেরোনোর  দিনই NRC-র বিরূদ্ধে সোচ্চার  হয়েছিলেন হেমন্ত।।  বলেছিলেন NRC আর CAA এর প্রশ্নে যখন গোটা দেশ উত্তাল।  তখন দেশের মানুষের  ভাবাবেগের সঙ্গেই থাকবেন তিনি। সেক্ষেত্রে তার রাজ্যে সিএএ লাগু করবার বিষয়ে যে তিনি রক্ষণশীল ,  তা প্রথম দিনই স্পষ্ট  করে দিয়েছিলেন শিবু সোরেন র উত্তরসূরি ।। রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, এন আরসি,  সিএএ নিয়ে ইস্যুতে  মমতা সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল যে ভাবে সরব তাতে শপথ মঞ্চকে ব্যবহার করেই সিএএ ইস্যুকে সামনে রেখে মোদী শাহ,  বিজেপির বিরূদ্ধেই সরব হবেন অবিজেপি নেতা নেত্রীরা।
First published: December 28, 2019, 5:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर