প্রথম ভারত সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট, ট্রাম্পের সফরে কী পাবে ভারত?

কূটনৈতিক মহলের ধারণা, ভোটের আগে ট্রাম্পের সঙ্গে বড় কোনও চুক্তির পথে হাঁটবে না নয়াদিল্লি। কিন্তু তারপরও ট্রাম্পের থেকে অনেককিছু পাওয়ার আশায় রয়েছে মোদি সরকার।

কূটনৈতিক মহলের ধারণা, ভোটের আগে ট্রাম্পের সঙ্গে বড় কোনও চুক্তির পথে হাঁটবে না নয়াদিল্লি। কিন্তু তারপরও ট্রাম্পের থেকে অনেককিছু পাওয়ার আশায় রয়েছে মোদি সরকার।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: শেষ পর্যন্ত কী কী দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সই হবে? পাকিস্তানের জন্য কি কোনও কড়া বার্তা দেবেন? CAA-কাশ্মীর নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বসবেন না তো? প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রথম ভারত সফরের আগে চাওয়া-পাওয়ার হিসেব নিয়ে জোর চর্চা কূটনৈতিক মহলে।

    দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তি যে হচ্ছে না, তা আগেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। ভারত ভাল ব্যবহার করেনি বলে আগেভাগে বেসুরো গেয়েও রেখেছেন। তারপরেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম ভারত সফর নিয়ে আগ্রহে খামতি নেই। ট্রাম্পের সফরের দিকে শুধু ভারতই নয়, তাকিয়ে রয়েছে আন্তর্জাতিক মহলও। এই পরিস্থিতিতে ফের একবার কূটনৈতিক মহলের আতস কাচের তলায় ভারত-মার্কিন সম্পর্ক। ট্রাম্পের সফরের আগে জোর চর্চা লাভ-ক্ষতির হিসেব নিয়ে।

    বছর শেষে আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। কূটনৈতিক মহলের ধারণা, ভোটের আগে ট্রাম্পের সঙ্গে বড় কোনও চুক্তির পথে হাঁটবে না নয়াদিল্লি। কিন্তু তারপরও ট্রাম্পের থেকে অনেককিছু পাওয়ার আশায় রয়েছে মোদি সরকার।

    দিল্লির প্রত্যাশা

    - ট্রাম্পের সফরে প্রতিরক্ষা থেকে নতুন প্রযুক্তি আমদানির দরজা খুলতে পারে - পরমাণু ও মহাকাশ গবেষণায় মিলতে পারে আরও মার্কিন সাহায্য - সন্ত্রাস দমনে ভারতের পাশে থাকার বার্তা দিতে পারেন ট্রাম্প - সন্ত্রাস প্রশ্নের সরাসরি বার্তা দিতে পারেন পাকিস্তানকে - ট্রাম্পের সফরের পর ভারত-প্রশান্ত মহাসাগীয় অঞ্চলে দর বাড়তে পারে

    এ তো গেল ভারতের প্রত্যাশার কথা। উল্টো দিক থেকে ওয়াশিংটনের চাহিদার ফর্দও কম লম্বা নয়।

    ওয়াশিংটনের চাহিদা

    - মার্কিন পণ্যের জন্য আরও খুলুক ভারতীয় বাজারের দরজা - কমানো হোক আমদানি শুল্ক - আমেরিকা থেকে কৃষি ও দুগ্ধজাত পণ্য আমদানি করুক ভারত - রাশিয়ার পরিবর্তে আমেরিকা থেকে আরও বেশি অস্ত্র কিনুক নয়াদিল্লি - চিনের মোকাবিলায় আরও সক্রিয় ভূমিকা পালন করুক মোদি সরকার চাওয়া-পাওয়ার হিসেবের বাইরে আশঙ্কার কাঁটাও অপেক্ষা করে রয়েছে নয়াদিল্লির জন্য। ইতিমধ্যেই হোয়াইট হাউস জানিয়ে রেখেছে, মোদির কাছে ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়ে প্রশ্ন করবেন ট্রাম্প। অস্বস্তিকর প্রশ্নের মুখে মোদি জবাব কী হবে, তা জানার অপেক্ষায় কূটনৈতিক মহল।

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: