• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • দেশ হোক বা রাজ্য, বামেদের অবস্থা এখন আইসিসিইউ'তে থাকা রোগীর মতোই

দেশ হোক বা রাজ্য, বামেদের অবস্থা এখন আইসিসিইউ'তে থাকা রোগীর মতোই

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: স্বাধীনতার পর এই প্রথম। রাজ্যে একটিও আসন পেল না বামেরা। আর ধর্মনিরপেক্ষ বলে ঘোষিত বামপন্থীদের ভোটেই বিপুল সাফল্য পেল গেরুয়া শিবির। দেশেও দশের কম আসন পেয়েই থামতে হল বাম শিবিরকে। রাজ্যে বেশিরভাগ আসনেই বামেদের জমানত বাজেয়াপ্ত।

    অশনি সংকেত, সতর্কতা - সবই ছিল। ভোটের আগে বার্তা দেন খোদ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যও। বাম ভোটারদের সতর্ক করে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জানান,বামেরা যেন কোনওভাবেই বিজেপিকে ভোট দেওয়ার ভুল না করেন। তপ্ত কড়াই থেকে ফুটন্ত উনুনে পড়াটা ভুল হবে ৷ কোনও নেতাই তাদের বক্তব্যে এই বার্তা পৌঁছে দিতে পারেননি, বা দেননি বাম কর্মী-সমর্থকদের কাছে। যার ফল বিপুল সংখ্যায় বাম ভোট গেল রামে।

    ২০১৪ সালে ২৯.৭২ শতাংশ ভোট পায় বামেরা

    এবার বামেদের ভোট কমে ৭ শতাংশ হয়েছে

    ২০১৪ সালে লোকসভায় এরাজ্যে ১৬.৫৫ শতাংশ ভোট পায় বিজেপি

    এবার এরাজ্যে প্রায় ৪০ শতাংশ ভোট পেয়েছে বিজেপি

    নজিরবিহীন এই বিপর্যয়ের পরও ধর্মীয় মেরুকরণের বিষয়টি ঘুরপথে মেনে নিচ্ছেন বাম নেতৃত্ব।শুধু তাই নয়, ৪২টি আসনে অত্যন্ত খারাপ ফল করেছে বামেরা।

    অধিকাংশ আসনে বাম প্রার্থীরা তৃতীয় স্থানে

    বহু জায়গায় বাম প্রার্থীদের জামানত বাজেয়াপ্ত

    বাম নেতৃত্বের একের পর এক ভুল নীতি। উদাসীনতা। সব বুঝেও না বোঝার ভান -- অনেক কারণই উঠে আসছে আলোচনায়।

    বিজেপিকে রোখা নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করেনি দল

    বিজেপিতে ভোট যাওয়া আটকাতেও প্রচার চলেনি

    বিকল্প নীতি তুলে ধরা যায়নি

    তৃণমূলকে মূল প্রতিপক্ষ ভেবে বিজেপিকে উপেক্ষা করা হয়েছে

    হিন্দু-মুসলিম ভোটের বিভাজনও বোঝেননি বাম নেতারা

    ফল বিশ্লেষণ করে আরও কয়েকটি বিষয় স্পষ্ট,

    বামেদের সংখ্যালঘু ভোটারদের বড় অংশ তৃণমূলকে ভোট দিয়েছেন

    বামপন্থী হিন্দু ভোটাররা বিজেপিকে বিকল্প বেছেছেন

    তৃণমূল কংগ্রেসের ভোট তাই বেড়েছে

    তবে বিজেপির ভোট তুলনায় অনেক বেশি বেড়েছে

    সারা দেশে এমন করুণ অবস্থার পরেও শীর্ষনেতৃত্ব স্পষ্ট জবাব দিতে পারছেন না।দেশ হোক বা রাজ্য -- বামেদের অবস্থা এখন আইসিসিইউ'তে থাকা রোগীর মতোই।

    First published: