• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • পণ্য ও পরিষেবা কর কী? এই কর ব্যবস্থায় কী সুবিধা হবে?

পণ্য ও পরিষেবা কর কী? এই কর ব্যবস্থায় কী সুবিধা হবে?

দেশজুড়ে পণ্য ও পরিষেবা কর নিয়ে বিস্তর আলোচনা। সংসদে বির্তকের ঝড়।

দেশজুড়ে পণ্য ও পরিষেবা কর নিয়ে বিস্তর আলোচনা। সংসদে বির্তকের ঝড়।

দেশজুড়ে পণ্য ও পরিষেবা কর নিয়ে বিস্তর আলোচনা। সংসদে বির্তকের ঝড়।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দেশজুড়ে পণ্য ও পরিষেবা কর নিয়ে বিস্তর আলোচনা। সংসদে বির্তকের ঝড়। ম্যারাথন বৈঠক রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে। কিন্তু কী এই পণ্য ও পরিষেবা কর বা জিএসটি? কেনই বা জিএসটি চালু করতে উঠেপড়ে লেগেছে কেন্দ্রীয় সরকার? এই কর ব্যবস্থায় কতটা লাভবান হবেন আম আদমি?

    ক্রেতাকে একটি পণ্য কিনতে বা পরিষেবা নিতে বর্তমানে একাধিক ট্যাক্স বা কর দিতে হয়। পরিষেবা কর, উৎপাদন শুল্কের মতো কিছু কর নেয় কেন্দ্র। রাজ্যগুলি নেয় সেলস ট্যাক্স, লাক্সারি ট্যাক্স, ভ্যাটের মতো কর। আলাদাভাবে না নিয়ে, এক ছাতার তলায় সব করকে আনতেই গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স বা পণ্য ও পরিষেবা করের জন্ম। অর্থাৎ, ক্রেতা একটি পণ্য কিনলে বা পরিষেবা নিতে চাইলে যে একটিমাত্র কর দেবেন, সেটাই জিএসটি।

    পণ্য ও পরিষেবা কর কী?

    একটি বিশেষ কর ব্যবস্থা যা বর্তমান পরোক্ষ করের পরিবর্তে কার্যকর হবে ৷ পণ্য এবং পরিষেবা, দু'টির উপরই কার্যকর হবে জিএসটি ৷ এই কর ব্যবস্থার দু'টি স্তর বা কাঠামো। কেন্দ্রীয় জিএসটি এবং রাজ্য জিএসটি ৷ পণ্য ও পরিষেবা কর চালু হলে কেন্দ্রে ও রাজ্যের একাধিক কর বিলুপ্ত হয়ে যাবে।

    কেন্দ্রীয় করের বিলুপ্তিতে রয়েছে, সেন্ট্রাল এক্সাইজ ডিউটি, অতিরিক্ত আবগারি ও কাস্টম ডিউটি, স্পেশাল অ্যাডিশনাল ডিউটি অফ কাস্টমস বা স্যাড, পরিষেবা কর ৷ পণ্য ও পরিষেবা প্রদানে সেস ও সারচার্জ ৷

    রাজ্যের করের বিলুপ্তি রয়েছে, ভ্যাট, কেন্দ্রীয় বিক্রয় কর, পারচেজ ট্যাক্স, লাক্সারি ট্যাক্স, প্রবেশ কর, বিনোদর কর বিজ্ঞাপন, লটারি, বাজি ও জুয়ায় কর, স্টেট সেস অ্যান্ড সারচার্জ ৷

    অর্থনীতিবিদের একটা বড় অংশের মতে, জিএসটি চালু হলে লাভবান হবে দেশের অর্থনীতি। উপকৃত হবেন সাধারণ মানুষও। জিএসটির সুবিধা হল করফাঁকি রোধ, কমবে করের হার, কমবে কর ব্যবস্থার জটিলতাও, ব্যবসা-বাণিজ্যের সরলীকরণ, বাড়বে জাতীয় আয় ৷

    এখন কোনও পণ্য উৎপাদন থেকে শুরু করে, তা বিক্রির জায়গা পর্যন্ত নানা ধাপে কর দিতে হয়। অনেক ক্ষেত্রে যেগুলো বুঝতেও পারেন না ক্রেতা বা উপভোক্তা। পরতে পরতে কর না চাপিয়ে, দেশে একটি মাত্র কর ব্যবস্থা চালু করাই জিএসটির লক্ষ্য।

    First published: