corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘নগদে উপহার দিতে হলে খুচরো আনুন’, হোয়াটস অ্যাপে ভাইরাল বিয়ের কার্ড

‘নগদে উপহার দিতে হলে খুচরো আনুন’, হোয়াটস অ্যাপে ভাইরাল বিয়ের কার্ড

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির একটি ঘোষণা পাল্টে দিয়েছে গোটা দেশের চিত্র ৷ হাটে বাজারে, ফেসবুকে-হোয়াটস অ্যাপে, অফিসে-বাসে শুধু একই আলোচনা ‘টাকা’ ৷

  • Share this:

#জয়পুর: মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির একটি ঘোষণা পাল্টে দিয়েছে গোটা দেশের চিত্র ৷ হাটে বাজারে, ফেসবুকে-হোয়াটস অ্যাপে, অফিসে-বাসে শুধু একই আলোচনা ‘টাকা’ ৷ গোটা সোস্যাল মিডিয়া জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে নানা জোক, নানা পোস্ট ৷ কোথাও সদ্য অচল নোটের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন, কোথাও কালো টাকার মালিকদের নিয়ে মশকরা ৷

এরই মাঝে ভাইরাল রাজস্থানের এক হবু দম্পতি পূর্ণিমা ও আশিষের বিয়ের কার্ড ৷ প্রধানমন্ত্রী ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোটকে অচল ঘোষণা করার পর এক অভিনব কার্ড ছাপিয়েছেন রাজস্থানের শ্রীগঙ্গানগর জেলার বাসিন্দা পূর্ণিমার বাবা জ্যোতি প্রসাদ সহদেব ৷ মেয়ের বিয়ের কার্ডে উপর স্পষ্ট করে ছাপিয়ে দিয়েছেন যে, বিয়েতে পাত্র-পাত্রীকে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোটে নগদ উপহার দেওয়া যাবে না ৷ নগদেই উপহার দিতে হলে আনুন খুচরো ৷

ভগবানের মন্দিরের পর এবার বিয়ে বাড়িতেও অচল নোটের প্রবেশ নিষেধ ৷ নোট বাতিলের জেরে হোয়াটস অ্যাপে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে পূর্ণিমা ও আশিষের বিয়ের কার্ডের ছবি ৷

পাত্রীর বাবা সহদেব জানিয়েছেন, পুরনো নোট বদলাতে বহু হয়রানির মুখোমুখি হচ্ছেন সাধারণ মানুষ ৷ প্রধানমন্ত্রী ৫০০ ও ১০০০-এর নোট বাতিলের পর থেকেই চারিদিকে নোট নিয়ে হাহাকার চলছে ৷ এরই মধ্যে কী করে কালো টাকা সাদা করা যায় সেই ধান্দায় রয়েছেন বহু অসৎ মানুষ ৷ সহদেবের ভয় বিয়েতে মেয়ের হাতেই হয়ত উপহার হিসেবে সেই টাকা ধরিয়ে দিল কেউ ৷ আবার অচল নোট থেকে পিছু ছাড়াতেও কেউ নব দম্পতির হাতে গুঁজে দিতে পারে বাতিল নোট ৷ সেই নোটকে পাল্টানোর অতিরিক্ত ভার নিজেদের কাঁধে নিতে নারাজ সহদেব ৷ সেই ভাবনা থেকেই এই অভিনব পদক্ষেপ পাত্রীর বাবার ৷

বহুদিন ধরেই বাড়িতে মেয়ের বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল ৷ ৮ তারিখ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর বদলে গিয়েছে সবকিছু ৷ মেয়ের বিয়ের জন্য তুলে রাখা নগদ টাকা সব বেকার হয়ে যাওয়ায় বিপদে পড়েছেন সহদেব ৷ তবে পারস্পরিক বোঝাপড়ায় সমস্যা সমাধানের পথ অতিকষ্টে বার করা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রীর এই পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন তিনি ৷ এমনকী, এই বিয়ের কার্ডের নির্দেশিকা পড়ে কেউ উপহার না নিয়ে বিয়েতে এলেও আপত্তি নেই তাঁর ৷

তবে মধুরেণ সমাপয়েৎ হলেও সমস্যায় পড়েছেন নিমন্ত্রিতরা ৷ নোট বদলের সুযোগ পাওয়ার আগেই ১২ নভেম্বর হাজির পূর্ণিমা ও আশিষের বিয়ের শুভক্ষণ ৷ ৫০০ ও ১০০০-এর নোট অচল হওয়ায় অনেকেই উপহার কিনতে পারেননি ৷ এদিকে অচল নোট নগদ হিসেবে উপহারেও দেওয়া যাবে না ৷ আনতে হবে খুচরো ৷ তাহলে এবার কী নিয়ে যাওয়া যায় বিয়েতে! নোট পাল্টানোর থেকেও সেই চিন্তায় ব্যস্ত পাত্র-পাত্রীর পরিজনেরা ৷

First published: November 12, 2016, 8:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर