• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • VISUALLY IMPAIRED SCHOLAR GETS CATEGORY RANK 3 IN UPSC CIVIL SERVICES TC RC

UPSC Visually Impaired Scholar: UPSC-তে দৃষ্টিশক্তিহীন তরুণের অবিশ্বাস্য সাফল্য, ক্যাটাগরি র‍্যাঙ্ক ৩ পেয়ে এবার ভারত সেরার লড়াই!

গোকুল এস।

কার্যভট্টমের ইংলিশ ইন্সটিটিউটে ইংরেজি সাহিত্যের ছাত্র গোকুল বর্তমানে অল ইন্ডিয়া র‍্যাঙ্কে আরও ভালো ফল করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। (UPSC Visually Impaired Scholar)

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দৃঢ় সংকল্প থাকলে যেকোনও বাধা পেরিয়েও যে সফল হওয়া যায় তা আরও একবার প্রমাণ করে দেখালেন তিরুবনন্তপুরমের অন্তর্গত তিরুমালার বাসিন্দা গোকুল এস (Gokul S)। ২৩ বছর বয়সী এই দৃষ্টিশক্তিহীন তরুণ UPSC সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় অল ইন্ডিয়া র‍্যাঙ্কে (AIR) ৮০৪ এবং ক্যাটেগরি র‍্যাঙ্কে ৩ নম্বরে রয়েছেন (UPSC Visually Impaired Scholar)। এমনকি এই ফলেও তিনি খুশি হননি। সেই জন্য পুনরায় পরীক্ষা দিয়েছেন। চেষ্টা করছেন যাতে এবারে আরও ভালো র‍্যাঙ্ক করতে পারেন।

কার্যভট্টমের ইংলিশ ইন্সটিটিউটে ইংরেজি সাহিত্যের ছাত্র গোকুল বর্তমানে অল ইন্ডিয়া র‍্যাঙ্কে আরও ভালো ফল করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। UPSC-র মতো পরীক্ষায় তার উৎসাহের কারণ হিসেবে গোকুল জানিয়েছেন, ২০১৮ সালে কেরলের বন্যায় নিজের প্রত্যক্ষ দ্রষ্টায় তরুণ অফিসারদের দেখেছিলেন মানুষের পাশে দাঁড়াতে, উদয়াস্ত পরিশ্রম করে মানুষের জীবন বাঁচাতে। সেই থেকে তিনিও মনে মনে সংকল্প করেছিলেন এই পেশায় আসার, যাতে দেশের সেবা করতে পারেন। ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো গোকুল UPSC-র পরীক্ষা দিয়েছিলন। ২০২০ তে আরও ভালো ফলের আশা করছেন তিনি।

আরও পড়ুন: সাবাশ! কৌন বনেগা ক্রোড়পতি ১৩-র প্রথম ক্রোড়পতি হলেন দৃষ্টিশক্তিহীন এই শিক্ষিকা

UPSC-র প্রস্তুতির ব্যাপারে গোকুলের মত, শুধুমাত্র পড়লেই হবে না, পড়াশোনার ক্ষেত্রে কী ধরনের স্টাডি ম্যাটেরিয়াল পছন্দ করা হচ্ছে বা কীভাবে পড়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে সেই বিষয়ে স্পষ্ট পরিকল্পনা থাকাটাও জরুরি। UPSC-র পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হলে নির্দিষ্ট সময় মেনে চলা, নিজের লক্ষ্যে অবিচল থাকা এবং সঠিক স্টাডি ম্যাটেরিয়াল নির্বাচন এই তিনটি বিষয়ের ওপর জোর দিয়েছেন গোকুল। নিয়মিত চর্চা এবং অধ্যবসায়ই এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার একমাত্র চাবিকাঠি বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রিলিমিনারি এবং মেনসের প্রস্তুতি নিয়েও সমান ভাবে পরিশ্রম করেছেন গোকুল। নিয়মিত প্রশ্ন-উত্তর প্র্যাকটিস করা, বিভিন্ন মক টেস্টে অংশ নেওয়া, অনলাইন পঠন-পদ্ধতির সুযোগ নেওয়া ইত্যাদি বিষয়ে গোকুল সচেতন ছিলেন।

ইন্টারভিউয়ের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে তার মতামত জানতে চাওয়া হলে গোকুল জানিয়েছেন, নিজেকে সব ধরনের প্রশ্নের জন্য প্রস্তুত রাখতে হবে। মূলত প্রার্থীদের পছন্দের বিষয় থেকে ইন্টারভিউয়ের প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয়। এর পাশাপাশি অন্য বিষয় নিয়েও প্রশ্ন থাকে।

নিজের কঠোর পরিশ্রম গোকুলকে তার সব রকম প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও সাফল্য এনে দিয়েছে। UPSC-র ফল প্রকাশের পর গোকুলের সাফল্য নজর কেড়েছে অনেক শিক্ষার্থীর। অনেকেই এখন গোকুলের থেকে UPSC-র প্রস্তুতি বিষয়ক মতামত জানতে চাইছেন। ২৩ বছর বয়সী গোকুলের কাছে এটা তার জীবনের এক অনাবিল আনন্দের অভিজ্ঞতা।

Published by:Raima Chakraborty
First published: