ব্রিজের উপর মালবাহী রিক্সাকে সাহায্য বাইক-আরোহীর, ভিডিও শেয়ার করলেন সেওয়াগ!

ব্রিজের উপর মালবাহী রিক্সাকে সাহায্য বাইক-আরোহীর, ভিডিও শেয়ার করলেন সেওয়াগ!

ব্রিজের উপর দিয়ে ভারী মালবাহী রিক্সা নিয়ে যাচ্ছেন এক ব্যক্তি। পিছন থেকে ঠেলছেন এক মহিলা।

ব্রিজের উপর দিয়ে ভারী মালবাহী রিক্সা নিয়ে যাচ্ছেন এক ব্যক্তি। পিছন থেকে ঠেলছেন এক মহিলা।

  • Share this:

#মুম্বই: ব্রিজের উপর দিয়ে ভারী মালবাহী রিক্সা নিয়ে যাচ্ছেন এক ব্যক্তি। পিছন থেকে ঠেলছেন এক মহিলা। এমন সময় এক বাইক-আরোহী এসে তাঁদের ব্রিজ পার করিয়ে দিলেন। সম্প্রতি এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। প্রাক্তন ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেওয়াগ (Virender Sehwag) নিজে ভিডিওটি শেয়ার করে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ওই বাইক-আরোহীর।

নিজের ট্যুইটারে ভিডিও ক্লিপটি শেয়ার করেছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেওয়াগ। দেখা যাচ্ছে সম্পূর্ণ এক অপরিচিত বাইক-আরোহী হঠাৎই পিছন থেকে এসে ওই রিক্সাওয়ালাকে সাহায্য করছেন। ১৫ সেকেন্ডের ভিডিওর প্রথমে দেখা যাচ্ছে, ব্রিজের উপর দিয়ে এক ব্যক্তি একটি মাল-বোঝাই রিক্সা নিয়ে যাচ্ছেন। আর পিছন থেকে রিক্সাটিকে ঠেলছেন এক মহিলা। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই পিছন থেকে একটি বাইক আসে। এর পর ওই বাইক-আরোহী মহিলাকে রিক্সায় বসতে বলেন। এবং নিজেই রিক্সাটিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করেন। ভিডিওটি শেয়ার করার পর ক্যাপশনে সেওয়াগ লেখেন- ইনসানিয়ত জিন্দাবাদ।

ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও। শুধু ট্যুইটারে ২৮,০০০ পেরিয়েছে লাইকের সংখ্যা। ২ লক্ষের বেশি ভিউজ রয়েছে। কমেন্ট থেকেই জানা গিয়েছে এই বাইকার ন্যাশনাল ক্যাপিটাল রিজিওন (NCR) এলাকার। প্রায়শই এই ধরনের কাজ করে থাকেন তিনি। কমেন্ট সেকশনে ভিডিওটির একটি লঙ্গার ভার্সনও শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, এভাবেই রাস্তায় আটকে থাকা অনেক মানুষকে সাহায্য করছেন এই ইউটিউবার (YouTuber) বাইকার।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই ইউটিউবে (YouTube) বেশ জনপ্রিয় এই বাইকার। ব়্যামি রাইডার (Rammy Ryder) নামে পরিচিত এই ব্যক্তির ৮ লক্ষের বেশি সাবস্ক্রাইবার ও ৩৬,০০০-এর বেশি ফলোয়ার রয়েছে।

ভিডিওটিতে অনেকেই কমেন্ট করেছেন। বাইক-আরোহীর এই কাজকে কুর্নিশ জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন। এক ব্যবহারকারী লিখেছেন, এই বাইকারদের একটি গ্রুপ রয়েছে। এরা নানা জায়গায় এই ধরনের কাজ করে থাকেন। একজন আবার নিজের অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন। জানিয়েছেন, তিনি ও তাঁর বন্ধুরাও এভাবে অনেককে সাহায্য করেন। এই কাজে একটা ভালো লাগাও জড়িয়ে রয়েছে।

অনেকে আবার সমালোচনাও করেছেন। এক ব্যবহারকারীর কথায়, ব্রিজের উপর এই ধরনের কার্যকলাপ অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। রাস্তায় অন্যান্য গাড়ির ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। যে কোনও সময়ে দুর্ঘটনাও ঘটে যেতে পারে। অন্য এক ব্যবহারকারী লিখেছেন, প্রচার পাওয়ার জন্যই এই ধরনের কাজ করে থাকেন কিছু বাইক রাইডাররা তথা পেশাদার ইউটিউবাররা। বিশেষ করে বাইকের হেলমেটে GoPro অ্যাকশন ক্যামেরা পরার পরই এই ধরনের নানা কাজ করার চেষ্টা করেন তাঁরা। এটি আসলে জনপ্রিয়তা পাওয়ার চেষ্টা।

তবে সমস্ত কিছু ছাপিয়ে বাইক-আরোহীর প্রশংসা করেছেন অধিকাংশ মানুষ।

Published by:Akash Misra
First published: