• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • VERDICT ON BABRI DEMOLITION CASE ON SEPT 30 AFTER 27 YEARS LK ADVANI MM JOSHI AND UMA BHARTI TO BE PRESENT PBD

বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার রায় ৩০ সেপ্টেম্বর, আডবাণী সহ সব অভিযুক্তকে হাজির থাকতে হবে আদালতে

দীর্ঘ ২৭ বছর পর রায় মিলবে অযোধ্যার বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার৷

দীর্ঘ ২৭ বছর পর রায় মিলবে অযোধ্যার বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ২৭ বছর পর অবশেষে আসছে সেই দিন৷ অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার রায়৷ ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনা ঘটে। প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আডবাণী, মুরলী মনোহর জোসি, উমা ভারতী, প্রাক্তন রাজ্যপাল ও  উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিং, বিজেপি নেতা বিনয় কাটিয়ার সহ একাধিক ব্যক্তিত্ব এই মামলায় অভিযুক্ত। রায়দানের দিন অভিযুক্ত সকলকে আদালতে হাজির থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ এই মামলায় ৩২ জন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেছিল সিবিআই, যার মধ্যে অনেকের মৃত্যু হয়েছে।

    মঙ্গলবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে শেষ হয় এই মামলার শুনানি৷ বিশেষ সিবিআই আদালতকে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই মামলায় রায় দিতে হবে বলে আগেই নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট।

    ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর অযোধ্যার বাবরি মসজিদ ভেঙে ফেলার অভিযোগে মোট ৪৯টি এফআইআর হয়েছিল। প্রথমে ফৈজাবাদে একটি এফআইআর দায়ের করেন এসও প্রিয়বন্দ নাথ শুক্লা এবং অন্য আরও একটি অভিযোগ দায়ের করেন গঙ্গা প্রসাদ তিওয়ারি। বাকি ৪৭টি এফআইআর-ও পরে বিভিন্ন তারিখে দায়ের করা হয়েছিল। ১৯৯৩ সালের ৫ অক্টোবর সিবিআই তদন্ত শেষে মামলার মোট ৩২ জন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে। এর মধ্যে ১৭ জন বিচার চলাকালীনই মারা গিয়েছেন।

    এর আগে ৩১ অগাস্ট রায়দানের জন্য শেষ দিন হিসেবে ধার্য করে সর্বোচ্চ আদালত৷ এই হাই প্রোফাইল মামলায় বিচারপতি এস কে যাদবের উল্লেখ করা নোটে নজর রাখেন৷ তারপরই বিচারপতি আর এফ নরিম্যান, নবীন সিনহা, ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান যে, পরিস্থিতি বিবেচনা করে তাঁরা এই মামলার রায়দানে আরও ১ মাস সময় দিচ্ছেন৷ অর্থাৎ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ হবে এই হাই প্রোফাইল কেসের রায়দান৷
    Published by:Pooja Basu
    First published: