corona virus btn
corona virus btn
Loading

বর্ণিকার ঘটনায় জাতীয় মহিলা কমিশনের অভিযোগপত্র যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদির কাছে

বর্ণিকার ঘটনায় জাতীয় মহিলা কমিশনের অভিযোগপত্র যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদির কাছে

ণ্দুঃসহ অভিজ্ঞতার সাক্ষী হয়েছেন। পুলিশে লিখিত অভিযোগ, জবানবন্দি দেওয়ার পরেও জামিন পেয়ে গিয়েছে অভিযুক্তরা।

  • Share this:

#চণ্ডীগড়: ণ্দুঃসহ অভিজ্ঞতার সাক্ষী হয়েছেন। পুলিশে লিখিত অভিযোগ, জবানবন্দি দেওয়ার পরেও জামিন পেয়ে গিয়েছে অভিযুক্তরা। তবে আইনের উপর ভরসা হারাচ্ছেন না বর্তিকা কুণ্ডু। নিজের জন্য, তাঁর মতো আরও অনেক মেয়ের জন্য লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার বর্ণিকার। নিজের লড়াইয়ে গোটা দেশকে পাশে পাচ্ছেন। এটাও ভরসা দিচ্ছে বর্ণিকাকে। ইটিভি নিউজে এক্সক্লসিভ এই মুহূর্তে প্রতিবাদ আর লড়াইয়ের অন্যতম উজ্জ্বল মুখ।

তাজ্জব কাণ্ড।শুক্রবার গভীর রাতে তরুণীকে ধাওয়া করে গাড়ি ছুটিয়েছিলেন হরিয়ানার বিজেপি সভাপতির ছেলে। তার মধ্যে বিভিন্ন রাস্তায় থাকা ৫টি সিসিটিভি ফুটেজই অকেজো। অপহরণের ছক ও নিগ্রহের মতো অভিযোগেও ধৃতদের বিরুদ্ধে জামিন-অযোগ্য ধারা দেয়নি পুলিশ। উলটে ঘটনায় তরুণীর দিকেই আঙুল বিজেপি নেতাদের। তোলপাড় হরিয়ানা বিজেপি। ঘটনার রিপোর্ট তলব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের। রিপোর্ট চাইতে চলেছে জাতীয় মহিলা কমিশনও।

তরুণীকে ফলো করার ফুটেজ উধাও প্রবল চাপে হরিয়ানার বিজেপি সভাপতি দলেই ক্ষোভের মুখে রাজ্য সভাপতি জামিনযোগ্য ধারা দেওয়ায় প্রশ্ন

গাড়িতে ধাওয়া করে অপহরণের অভিযোগ হরিয়ানার বিজেপি সভাপতির ছেলের বিরুদ্ধে ঘটনার রাতে মেন রোডের ভিডিও ফুটেজই নাকি নেই।

চন্ডীগড়ের সেক্টর ৭ থেকে হাউসিং বোর্ড পর্যন্ত ৯টি সিসিটিভি  এর মধ্যে ৪ টি সিসিটিভি খারাপ ৫ টি সিসিটিভিতে কোনও ফুটেজ ধরা পড়েনি অন্য রাস্তায় সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহের কাজ চালাচ্ছে পুলিশ বিকাশ ও তার সঙ্গী শুক্রবার রাতে বর্ণিকার পি্ছনে ধাওয়া করাতেই কি কাজ করা বন্ধ করে দিল সিসিটিভি?

অভিযুক্তদের জামিনযোগ্য ধারা দেওয়া নিয়েও অবশ্য প্রবল অস্বস্তিতে পুলিশ বর্ণিকার জীবনযাত্রা নিয়ে প্রশ্ন বারালা পরিবারের। নীতি শিক্ষা দিয়েছেন বিজেপি নেতারাও। অভিযুক্তদের বাঁচাতে প্রভাব খাটানোর অভিযোগ কংগ্রেসের।

পদত্যাগের জন্য চাপ বাড়তেই মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরের সঙ্গে দেখা করেন বিজেপি সভাপতি। পদত্যাগ করবেন না বলেও অনড় বিজেপি সভাপতি। তবে দলেরই একটি অংশ তাঁকে নিয়ে সরব।টুইট করে অবস্থান স্পষ্ট করেন বিজেপি সাংসদ কিরণ খেরও। ২০১৭ সালে আর ছেলে-মেয়েদের নিয়ে কোনভাবেই পার্থক্য করা যায় না।

খোদ আইএএস অফিসারের মেয়ে যদি এই অভিজ্ঞতার মুখে পড়েন, বাকিদের কি হবে? বর্ণিকার ঘটনায় রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব করতে চলেছে জাতীয় মহিলা কমিশন। অভিযোগ যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদির কাছেও।

First published: August 8, 2017, 7:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर