• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • VANDALISATION OF TELECOM TOWERS IN FARMERS PROTEST AND CHINAS 5G DESIGNS AM

Opinion : কৃষক আন্দোলনে নষ্ট টেলিকম টাওয়ার এবং চিনের ৫ জি প্ল্যান

গোটা ২০২০ সালটা করোনা দাপটে কেটেছে ৷ যা কিনা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে মারাত্মক রকম প্রভাব ফেলেছে ৷

গোটা ২০২০ সালটা করোনা দাপটে কেটেছে ৷ যা কিনা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে মারাত্মক রকম প্রভাব ফেলেছে ৷

  • Share this:

    প্রতিবেদন -

    #নয়াদিল্লি: গোটা ২০২০ সালটা করোনা দাপটে কেটেছে ৷ যা কিনা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে মারাত্মক রকম প্রভাব ফেলেছে ৷ স্কুল বন্ধ হওয়ার কারণে পড়ুয়ারা ঘরে বসেই ক্লাস করছে ৷ অফিসে না গিয়েই শুরু হয়েছে বাড়ি থেকে অফিসের কাজ৷ শুধু তাই নয়, মেডিক্যাল সুবিধাগুলোও অনলাইনে চলে এসেছে ৷ অনলাইন পরিষেবাতে কেনা-বেচা, টাকার আদান-প্রদানে মানুষ দারুণভাবে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে ৷ ঠিক এই জায়গা থেকেই এক নতুন দিশার শুরুওয়াত৷ বিশেষজ্ঞদের মতে, চিনের বহু কোম্পানি বড় অঙ্কের বিনিয়োগের পথ অনুসরণ করেছে বহু দেশে ৫ জি পরিষেবাকে নিয়ে আসার এবং বিস্তারের জন্য ৷ ভাচুর্য়াল বিশ্বকে একেবারে হাতের মুঠোর মধ্যে নিতেই ৫ জি নেটওয়ার্ক মূলত পথ প্রসারিত করার জন্য তৈরি হচ্ছে ৷ Huawei এবং ZTE-এর মতো চিনা কোম্পানিগুলো ৫ জি ইনফাস্টাকচর নিয়ে প্রতি মুহূর্তে কাজ করে চলেছে ৷ ৫ জি বর্তমানের ৪ জি এবং নেটওয়ার্ক থেকে একশো শতাংশ বেশি মাত্রায় বা গতিতে কাজ করে থাকে ৷ যা কিনা স্মার্ট সিটির পক্ষে অত্যন্ত প্রয়োজনীও বিষয় ৷ বলা ভালো যেভাবে প্রতিদিন ইন্টারনেট ব্যবহারের চাহিদা বাড়ছে, তার সঙ্গে তার মেলানোর জন্য ৫ জি অত্যন্ত জরুরী ৷ প্রথম থেকেই টেকনোলজির ক্ষেত্রে চিনের নেতৃত্ব নজরে পড়ে ৷ মার্কিন অর্থনীতির সঙ্গে লড়াই করার ক্ষেত্রে চিনের এই শক্তিই একমাত্র হাতিয়ার তা বলা যেতে পারে ৷ ২০২০ সালের প্রথম দিকেই চিনে ৫ জি পরিষেবা শুরু হয়েছে ৷ প্রায় ৭,১৮,০০০ স্টেশন মিলিয়ে গোটা দেশে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্যই প্রায় ১৭০ মিলিয়ান ডিভাইসকে কার্যকরী করেছে ৷ আগামী বছরের মধ্যে আরও বিস্তার করার প্ল্যানও ইতিমধ্যেই নিয়ে ফেলেছে চিন ৷ চলতি বছরের অক্টোবর মাসে রিলায়েন্স ইতিমধ্যেই ৫ টেকনোলজির ট্রায়াল দিয়ে ফেলেছে মার্কিন কোম্পানি কুয়ালকমকে সঙ্গে নিয়ে ৷ শুধু তাই নয়, জিও ইতিমধ্যেই প্ল্যান গুগলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বাজারে ৫ জি স্মার্টফোন আনার কথা ভাবছে ৷ এই প্ল্যান যদি সফল হয়, তাহলে ভারতীয় বাজারে চিনা ফোন যেমন Xiaomi ও Vivo-এর এদেশে টিকে থাকা দুর্বল হয়ে পড়বে ৷ এদেশে ৫ জিকে আনার ব্যাপারে দুরন্ত গতিতে কাজ করে চলছে জিও ৷ ইতিমধ্যেই কৃষক আন্দোলনের তেজ আরও বেড়ে উঠেছে ৷ বিরোধী পার্টির মদতে এই আন্দোলন যেন আরও বেশি করে উত্তাপ বাড়াচ্ছে ৷ জানা গিয়েছে, এই আন্দোলন চালানোর জন্য যে অর্থের প্রয়োজন তা বিদেশ থেকেও আমদানি হচ্ছে ৷ এক্ষেত্রে কানাডা, ব্রিটেন এবং অন্যান্য দেশের শিখেরাও এগিয়ে এসেছে ৷ শুধু তাই নয়, সন্দেহ করা হচ্ছে এই আন্দোলনের পিছনে আর্থিক মেরুদণ্ড হিসেবে কাজ করছে খালিস্তান মুভমেন্টের সঙ্গে যুক্ত বেশ কিছু সংগঠন ৷ এই কৃষক আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে বহু কৃষক এবং সমর্থকরা পঞ্জাবে থাকা বেশ কিছু জিও-র টাওয়ারকে নষ্ট করেছে৷ শুধু তাই নয়, জেনারেটর লুঠ করেছে ৷ যা কিনা পরিষেবাকে প্রভাবিত করেছে ৷ এই ঘটনার পরেই নড়ে চড়ে বসেছে প্রশাসন এবং কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এই ধরনের আচরণকে বন্ধ করতে ৷ আশঙ্কা করা হচ্ছে, ৫ জি-র ব্যাপারে জিও-র এই এগিয়ে আসাকে থামানোর কারণে কৃষক আন্দোলনকে মদত করার পিছনে খালিস্তানের হাত ধরে পাকিস্তান এবং সবর্পরী চিন কি কোনওরকম কলকাঠি নাড়াতে ব্যস্ত? এই প্রশ্নই এখন ভাবাচ্ছে অনেককে ৷

    The author is a former Director General of Police and IG (Operations and Intelligence) of Sashastra Seema Bal. Views expressed are personal.

    Published by:Akash Misra
    First published: