ভয়াবহ হিমবাহ বিস্ফোরণে ধ্বংসের মুখে ঋষিগঙ্গা বিদ্যুৎ প্রকল্প, উদ্ধারকাজে NDRF-ITBP-সেনা জওয়ানরা

ভয়াবহ হিমবাহ বিস্ফোরণে ধ্বংসের মুখে ঋষিগঙ্গা বিদ্যুৎ প্রকল্প, উদ্ধারকাজে NDRF-ITBP-সেনা জওয়ানরা

ভয়াবহ হিমবাহ বিস্ফোরণে ধ্বংসের মুখে ঋষিগঙ্গা বিদ্যুৎ প্রকল্প।

ফিরল আট বছর আগের কেদারনাথের ভয়ঙ্কর স্মৃতি। রবিবার উত্তরাখণ্ডে চামোলি জেলায় মেঘভাঙা বৃষ্টিতে অলকানন্দ নদীর উপর শুরু হয়েছে প্রবল তুষারধস।

  • Share this:

    #চামোলি, উত্তরাখণ্ড: হিমবাহ বিস্ফোরণে বিপর্যস্ত উত্তরাখণ্ড। রবিবারের এই  বিপর্যয়ে ইতিমধ্যেই প্রায় ১৫০ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে ৩ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে NTPC পাওয়ার প্ল্যান্ট থেকে। সেখানে আরও বহু ঠিকাকর্মীর আটকে থাকার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ফলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি উদ্ধারকাজে নেমেছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, ITBP এবং সেনা জওয়ানরা। উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিভেন্দ্র সিং রাওয়াত ট্যুইট করে জানিয়েছেন, উত্তরাখণ্ডের যোশীমঠের স্থানীয় পুলিশ ছাড়া উদ্ধার কাজে যোগ দিয়েছে সেনা এবং ভারত-তিব্বতীয় সীমান্ত সেনা জওয়ানরা। এ ছাড়া যুদ্ধকালীন তৎপরতায় উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর জওয়ানরা।

    ফিরল আট বছর আগের কেদারনাথের ভয়ঙ্কর স্মৃতি। রবিবার উত্তরাখণ্ডে চামোলি জেলায় মেঘভাঙা বৃষ্টিতে অলকানন্দ নদীর উপর শুরু হয়েছে প্রবল তুষারধস।উল্লেখ্য, এখনও পর্যন্ত ১৫০ জনের ওপর শ্রমিক নিখোঁজ৷ যাঁরা ঋষিগঙ্গা নদীর উপর তৈরি হওয়া বিদ্যুৎ প্রকল্পে কাজ করছিলেন৷ রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর (State Disaster Response Force, SDRF) ডিআইজি ঋদ্ধিম আগরওয়াল জানিয়েছেন যে, বিদ্যুৎ প্রকল্পে কর্মরত নিখোঁজ শ্রমিকদের সঙ্গে কোনও ভাবে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না৷ ফলে তাঁদের ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ দিকে, পাউরি, তেহরি, রুদ্রপ্রয়াগ, হরিদ্ধার ও দেহরাদুনের মতো উত্তারখণ্ডের একাধিক জেলা ক্ষতিগ্রস্থ৷ সেখানে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে৷ রিভার রাফটিং বন্ধ করা হয়েছে ঋষিকেশে৷ উত্তরাখণ্ড পুলিশকে উদ্ধৃত করে দৈনিক ভাস্কর জানিয়েছে যে, শ্রীনগর, ঋষিকেশ ও হরিদ্বারে জলের স্তর বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে৷ ফলে সতর্ক থাকতে হবে প্রশাসনকে।

    এ দিকে, উদ্ধারকাজে নামানো হয়েছে হেলিকপ্টার। বায়ুসেনার C130 এবং An32 ব্যবহার করে উদ্ধারকাজ চালান হচ্ছে। পর্বতারোহণের যন্ত্রাদি ব্যবহার করে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন ITBP জওয়ানরা। পাশাপাশী, একটি ধ্রুব (ALH Dhruv) কাজ করছে৷ প্রয়োজনে আরও হেলিকপ্টার কাজে লাগাবে ভারতীয় সেনা৷ ইতিমধ্যে বন্যা বিধ্বস্ত এলাকায় দেশের ৬০০ সেনা উদ্ধারকার্যে নেমেছেন।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    লেটেস্ট খবর