সন্তানদের পড়াশোনার খরচ জোগাতে নিজের কিডনি বিক্রি করতে চান মা

সন্তানদের পড়াশোনার খরচ জোগাতে নিজের কিডনি বিক্রি করতে চান মা

চার সন্তানের পড়াশোনার খরচ চালাতে না পেরে অবশেষে নিজের কিডনি বিক্রি করতে চেয়েছেন মা ৷

  • Share this:

#লখনউ: চার সন্তানের পড়াশোনার খরচ চালাতে না পেরে অবশেষে নিজের কিডনি বিক্রি করতে চেয়েছেন মা ৷ উত্তরপ্রদেশের আগ্রার রোহতা এলাকার বাসিন্দা আরতি শর্মা ৷ আরতির চার সন্তান ৷ চারজনকেই CBSE স্কুলে ভর্তি করিয়েছিলেন তিনি ৷ কিন্তু স্কুলের ফি জমা দিতে না পারায় তার আরতির ছেলে মেয়েদের স্কুল থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৷

এরপর একটি সামাজিক সংগঠনের সাহায্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের কিডনি বিক্রি করতে চেয়ে একটি চিঠি পোস্ট করেন আরতি ৷ বৃহস্পতিবার আরতি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় জানিয়েছেন তার তিন মেয়ে ও এক ছেলে ৷ অভাবের সংসারে ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার খচর জোগাতে পারছিলেন না। তাই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ৷

৩৩০ স্কয়্যার ফিটের একটি ছোট্টো বাড়িতে আটজনকে নিয়ে থাকেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন তার স্বামীর রেডিমেড জামাকাপড়ের দোকান ছিল ৷ কিন্তু নোট বাতিলের পর থেকে তাদের ব্যবসায় সমস্যা দেখা দেয় ৷ এবং বাধ্য হয় সেটি বন্ধ করে দিতে হয় ৷ এর ফলে সংসারের আর্থিক পরিস্থিতির খারাপ হতে থাকে ৷

এলাকার আধিকারিকদের কাছে সাহায্যে চাইতে গেলে তারা আরতিকে ফিরিয়ে দেয় এই বলে যে নিজের সার্মথ্য অনুযায়ী ছেলেমেয়েদের স্কুলে ভর্তি করুন ৷

আরতি আরও জানিয়েছেন যে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগা আদিত্যনাথের সঙ্গে তিনি দেখা করেন সাহায্যের জন্য ৷ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে করতে যাওয়ার জন্য টাকা সংস্থান করতে ব্ল্যাকমার্কেটে নিজের LPG সিলিন্ডার বেচে দেন আরতি দেবী। মুখ্যমন্ত্রী সাহায্যের আশ্বাস দিলেও এখনও পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রীর তরফে কোনও সহায়তা এসে পৌঁছয়নি ৷

Loading...

তিনি আরও জানান যে তার এক বন্ধু জানায় যে প্রত্যেক মানুষের দুটি কিডনি রয়েছে ৷ ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে তিনি তখন একটা কিডনি বিক্রি করে দেওয়া সিদ্ধান্ত নেনে ৷ আরতির স্বামী মনোজ শর্মা বলছেন, এটা সম্পূর্ণ তাঁর স্ত্রীর সিদ্ধান্ত।

First published: 10:00:07 AM Jun 02, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर