'ধর্মনিরপেক্ষতার জন্যই দেশের ঐতিহ্য বিপদের মুখে', কীসের ইঙ্গিত যোগীর?

'ধর্মনিরপেক্ষতার জন্যই দেশের ঐতিহ্য বিপদের মুখে', কীসের ইঙ্গিত যোগীর?

নিজের রাজ্যে বসে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বললেন, 'বিশ্বের দরবারে ভারতের ঐতিহ্যকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে ধর্মনিরপেক্ষতাই সবচেয়ে বড় বিপদ'!

নিজের রাজ্যে বসে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বললেন, 'বিশ্বের দরবারে ভারতের ঐতিহ্যকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে ধর্মনিরপেক্ষতাই সবচেয়ে বড় বিপদ'!

  • Share this:

    #উত্তর প্রদেশ: দিনকয়েক আগেই বাংলায় প্রচারে এসে বলেছিলেন, ‘রাম নাম সর্বত্র বিরাজমান। রাম নাম অপছন্দ করলে তাঁর কোথাও জায়গা নেই।’ শুধু তাই নয়, জানিয়েছেন, বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে গোরু পাচার আর অবৈধ কসাইখানা বন্ধ হবে। অর্থাৎ তাঁর নিজের রাজ্যেও যে তা করে ছেড়েছেন, তা স্পষ্ট। এবার নিজের রাজ্যে বসে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বললেন, 'বিশ্বের দরবারে ভারতের ঐতিহ্যকে তুলে ধরার ক্ষেত্রে ধর্মনিরপেক্ষতাই সবচেয়ে বড় বিপদ'!

    রবিবার অযোধ্যা রিসার্চ সেন্টারের একটি অনুষ্ঠানে এসেছিলেন যোগী। সেখানেই তিনি ধর্মনিরপেক্ষতাকে ভারতীয় সংস্কৃতির জন্য বড় সংকট বলে উল্লেখ করেন তিনি। বলেন, ধর্মনিরপেক্ষতা বিশ্বের দরবারে ভারতের সংস্কৃতির জন্য বড় সংকট। রীতিমতো হুমকির সুরে যোগী বলেন, 'যাঁরা নিজেদের স্বার্থের জন্য মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন এবং দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছেন তাঁদের ছেড়ে কথা বলা হবে না।'

    যদিও আবেদনের সুরে তিনি সংযোজন করেন, নোংরা সাম্প্রদায়িকতার দেশের শান্তি নষ্ট করবেন না। তাঁর দাবি, টাকার বিনিময়ে অনেকেই মিথ্যা প্রচার করেন, কিন্তু এখন আর সেই দিন নেই, তাই যাঁরা এমন করছেন, তাঁদের জবাব দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি। অযোধ্যা রিসার্চ সেন্টারের উদ্যোগে তৈরি রামায়ণের গ্লোবাল এনসাইক্লোপিডিয়ার উদ্বোধন করেন যোগী।

    হিন্দু ধর্মের মাহাত্ম্যের কথা বলতে গিয়ে যোগী বলেন, 'কাম্বোডিয়ার সেই আঙ্করভাট মন্দির কিন্তু এক বৌদ্ধ ভিক্ষুক খুঁজে পেয়েছিলেন। তারপর তিনিও বিশ্বাস করতে শুরু করেন হিন্দু ধর্ম থেকেই বৌদ্ধা ধর্মের সৃষ্টি। আর এটাই সত্যি।'

    সম্প্রতি ভোট প্রচারে এসে মালদায় যোগী অভিযোগ করে যান, 'একসময় সবাই বাংলায় কাজের জন্য আসত। এখন বাংলার যুবকরা কাজের জন্য দিল্লি, উত্তরপ্রদেশে আসছে। এই পরিস্থিতি কে তৈরি করল?’ তাঁর বক্তব্যে উঠে আসে রামমন্দির প্রসঙ্গও। তিনি বলেন, ‘দেশের একতার প্রতীক গঙ্গা। সেই পবিত্র গঙ্গা এ রাজ্য এসে সাগরে মিশছে। কিন্তু বাংলার কিছু মানুষ দেশের একতাকে ভাঙার চেষ্টা করছেন। তাঁর দাবি, ‘উত্তরপ্রদেশে আইনের শাসন চলছে, আর বাংলায় শুধু তোষণ-রাজনীতি। বাংলায় লাভ জিহাদের ঘটনা ঘটছে।' আর এবার একেবারে ধর্মনিরপেক্ষতাকে নিশানা করলেন তিনি।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    লেটেস্ট খবর