• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • নারীনিগ্রহ বন্ধে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের সিংহম মিম, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসার ঝড়!

নারীনিগ্রহ বন্ধে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের সিংহম মিম, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসার ঝড়!

অজয় দেবগন (Ajay Devgan) এবং কাজল আগরওয়াল (Kajal Agarwal) অভিনীত ২০১১ সালের সিংহম (Singham) সিনেমার দৃশ্য ও সংলাপের মাধ্যমে ইউ-টিজারদের সাবধান করেছে যোগী আদি

অজয় দেবগন (Ajay Devgan) এবং কাজল আগরওয়াল (Kajal Agarwal) অভিনীত ২০১১ সালের সিংহম (Singham) সিনেমার দৃশ্য ও সংলাপের মাধ্যমে ইউ-টিজারদের সাবধান করেছে যোগী আদি

অজয় দেবগন (Ajay Devgan) এবং কাজল আগরওয়াল (Kajal Agarwal) অভিনীত ২০১১ সালের সিংহম (Singham) সিনেমার দৃশ্য ও সংলাপের মাধ্যমে ইউ-টিজারদের সাবধান করেছে যোগী আদি

  • Share this:

#লখনউ: নারী নিগ্রহ ও ইভ-টিজিং বন্ধে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের অভিনব উদ্যোগ শোরগোল ফেলে দিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। অজয় দেবগন (Ajay Devgan) এবং কাজল আগরওয়াল (Kajal Agarwal) অভিনীত ২০১১ সালের সিংহম (Singham) সিনেমার দৃশ্য ও সংলাপের মাধ্যমে ইউ-টিজারদের সাবধান করেছে যোগী আদিত্যনাথের পুলিশ প্রশাসন। নারী নিগ্রহের ঘটনায় যাদের নাম জড়াবে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা নেওয়ার বার্তা দিয়েছে উত্তরপ্রদেশের খাকি উর্দিধারীরা।

উত্তরপ্রদেশে বাড়তে থাকা নারী নিগ্রহ ও ইভ-টিজিংয়ের ঘটনা চিন্তা বাড়িয়েছে প্রশাসনের। রাজ্যকে অপরধ-মুক্ত করতে 'কল-১১২' পরিষেবা চালু করেছে পুলিশ। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে লেট নাইট পার্টির কারণে কোনও অসুবিধার সম্মুখীন হতে হলে ওই নম্বরে ফোন করে সাহায্য প্রার্থনা করা যেতে পারে। তারই পিছু পিছু উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কড়া ট্যুইট রাজ্যবাসীকে আশ্বস্ত করেছে বলা চলে।

গত বুধবার অর্থাৎ ১৭ ফেব্রুয়ারি উত্তরপ্রদেশে পুলিশের তরফে যে ট্যুইট করা হয়, তাতে অজয় দেবগন এবং কাজল আগরওয়াল অভিনীত ২০১১ সালের সিংহম সিনেমার দৃশ্য এবং সংলাপ কেটে একটি ভিডিওর কোলাজ তৈরি করা হয়েছে। যার শেষে খাকি উর্দিধারীদের তরফে নিগ্রহকারী এবং ইভ-টিজারদের জন্য কড়া বার্তা দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, 'ইয়ে ছেড়খানি করনে ওয়ালে হ্যায়, ইয়ে হাম হ্যায় অউর আব পুলিশ কি সাথ ইনকি পাওরি হোগি'। যা মুহুর্তে ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এই ট্যুইটে ইতিমধ্যেই প্রায় তিরিশ হাজার লাইক পড়ে গিয়েছে। সরব হয়েছেন নেটিজেনরা। কেউ উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ভাবনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন। কেউ খাকি উর্দিধারীদের উদ্যোগকে কুর্নিশ করেছেন। দিল্লি পুলিশের ইন্সপেক্টর সোনম জোশী (Sonam Joshi) সে রাজ্যের ডিসিপি-কে কোট করে এই ধরনের উদ্যোগের জন্য উৎসাহিত করেছেন।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এই কাজ দেখে আবার মুখ বেঁকিয়েছেন কেউ কেউ। এক নেটিজেন মনে করেন যে এই কাজের জন্য বিশেষ পিআর (PR) টিম তৈরি করেছেন যোগী রাজ্যের খাকি উর্দিধারীরা। যদিও সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে এটি পুলিশের সম্পূর্ণ নিজস্ব উদ্যোগ!

Published by:Ananya Chakraborty
First published: