আন্দোলন থামিয়ে রাস্তা খালি করুন! দিল্লি সীমান্তে কৃষকদের নির্দেশ যোগী সরকারের

আন্দোলন থামিয়ে রাস্তা খালি করুন! দিল্লি সীমান্তে কৃষকদের নির্দেশ যোগী সরকারের
প্রতীকী ছবি৷

কৃষকদের আজ বৃহস্পতিবার দিল্লি-উত্তরপ্রদেশ সীমান্ত ও গাজিপুরের রাস্তা খালি করতে বলা হল। সূত্রের খবর, আজ রাতের মধ্যে রাস্তা খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:
    #নয়াদিল্লি: কেন্দ্রের কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে নভেম্বর মাস থেকে দিল্লির সীমান্ত অঞ্চলে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। সেই কৃষকদের আজ বৃহস্পতিবার দিল্লি-উত্তরপ্রদেশ সীমান্ত ও গাজিপুরের রাস্তা খালি করতে বলা হল। সূত্রের খবর, আজ রাতের মধ্যে রাস্তা খালি করার নির্দেশ দিল গাজিপুর প্রশাসন।

    ২৬ নভেম্বর থেকে গাজিপুরের রাস্তায় আন্দোলন শুরু করেছিলেন কৃষকরা। সেই সময় থেকেই গাজিপুর সীমান্ত সিল করে দেওয়া হয়। কিন্তু গত সাধারণতন্ত্র দিবসে কৃষক আন্দোলনের ট্রাক্টর মিছিল চরম রূপ নেয়। এদিন ব্যারিকেডে ভেঙে ফেলেন বলে কৃষকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। রাজধানীতে ঘটনাকে ঘিরে ছড়ায় হিংসা।

    যে রুট দিয়ে ট্রাক্টর মিছিল হওয়ার কথা ছিল, সেটির বদলে অন্য রাস্তা কৃষকরা ধরেছিলেন বলে জানা গিয়েছে। সেখান থেকেই অশান্তি সৃষ্টি হয়। জানা যাচ্ছে, সেই মুহূর্তে পুলিশ বাধা দিতে গেলেই নাকি হিংসা ছড়ায়। এর পরেও একটি দল দিল্লির লাল কেল্লা পর্যন্ত পৌঁছয়।


    এর পরেই বুধবার দিল্লি পুলিশ কমিশনার এসএন শ্রীবাস্তব জানান, কৃষক নেতাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে। কাউকেই ছাড়া হবে না। বুধবার রাতেই বাঘপাত জেলায় আন্দোলনরত কৃষকদের উচ্ছেদ করা হয়। ভেঙে ফেলা হয় তাঁদের তাঁবু।

    এর পরে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বেশ কয়েকজন সিংঘু সীমান্তে বিক্ষোভ দেখান। নিজেদের এলাকার বাসিন্দা বলেই দাবি করেন তাঁরা। এলাকার থেকে কৃষকদের সরিয়ে দিয়ে রাস্তা ফাঁকা করার দাবিতে সরব হন তাঁরা। এলাকার এক বাসিন্দার কথায়, "গত দুমাস ধরে রাস্তা আটকে রয়েছে। এর জন্য এখন সকলের সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে। এমনকি দীনমজুর ও গ্রামের বাসিন্দাদেরও অসুবিধা হচ্ছে। আমরা চাই রাস্তা এবার খালি করে দেওয়া হোক। আজ আমরা অল্প সংখ্যক লোক এসেছি। কাল আরও মানুষ এই বিক্ষোভে যোগ দেবেন।"

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: