• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ফের অ্যাসিড হামলা! উত্তরপ্রদেশের ছাত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

ফের অ্যাসিড হামলা! উত্তরপ্রদেশের ছাত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

সোমবার সন্ধ্যেবেলা টিউশন পড়ে ফিরছিল সে। মাঝ রাস্তায় অ্যাসিড ছোঁড়া হয় তার মুখে। মুখ, বুকের কিছুটা অংশ এবং হাতদুটি মারাত্মকভাবে পুড়ে গিয়েছে তার।

সোমবার সন্ধ্যেবেলা টিউশন পড়ে ফিরছিল সে। মাঝ রাস্তায় অ্যাসিড ছোঁড়া হয় তার মুখে। মুখ, বুকের কিছুটা অংশ এবং হাতদুটি মারাত্মকভাবে পুড়ে গিয়েছে তার।

সোমবার সন্ধ্যেবেলা টিউশন পড়ে ফিরছিল সে। মাঝ রাস্তায় অ্যাসিড ছোঁড়া হয় তার মুখে। মুখ, বুকের কিছুটা অংশ এবং হাতদুটি মারাত্মকভাবে পুড়ে গিয়েছে তার।

  • Share this:

    #লখনউ:  অ্যাসিড নিষিদ্ধ করা হোক, কিংবা ‘ছপাক’ ছবির মাধ্যমে সমাজের মুখে সপাটে চড় মারা হোক, চলছে প্রতিবাদী পদক্ষেপ। কিন্তু তাতে আদৌ বদলাচ্ছে না কিছুই। অ্যাসিড হামলা দেশে বেড়েই চলছে অবিরত। এই রকম বিকৃত মানসিকতারই শিকার হতে হল উত্তর প্রদেশের ১৭ বছরের একটি ছাত্রীকে।

    পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত সোমবার সন্ধ্যেবেলা টিউশন পড়ে ফিরছিল সে। ফেরার পথে, দলদল হাউজের সামনে আসতেই অ্যাসিড ছোঁড়া হয় তার মুখে। মুখ, বুকের কিছুটা অংশ এবং হাতদুটি মারাত্মকভাবে পুড়ে গিয়েছে তার। সঙ্গে সঙ্গেই তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কাছাকাছি একটি হাসপাতালে। তবে ৫৪ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে তার শরীরের। হাসপাতাল সূত্রে খবর, ওই ছাত্রীর  অবস্থা এখনও সঙ্কটজনক। পুলিশ ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে ।

    নজিরপুরা’র বাসিন্দা এই ছাত্রী সে দিন টিউশন পড়তে গিয়েছিল কাজিপুরা এলাকায়। রাস্তায় হঠাৎই তার পথ আটকায় একটি ছেলে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই অ্যাসিড ছুঁড়ে মারা হয় তার মুখে। মুহূর্তের মধ্যে ঘটনাস্থল ছেড়ে পালায় অপরাধী। যন্ত্রণায় চিৎকার করতে থাকে মেয়েটি। তার চিৎকার শুনে এগিয়ে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে।

    মেয়েটির বাবা তারিক আলি জানিয়েছেন, “টিউশন পড়ে বাড়ি ফিরছিল আমার মেয়ে, আর সেই সময়ই কেউ মুখে অ্যাসিড ছুড়ে পালিয়ে যায়।” পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, অ্যাসিড হামলার শিকার এই মেয়েটির চিকিৎসা চলছে বাহরাইচ মেডিক্যাল কলেজে। তার স্টেটমেন্ট নেওয়া সম্ভব হলেই পুলিশের তরফে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

    Published by:Antara Dey
    First published: