Home /News /national /
West Bengal Name Change: পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের প্রস্তাব পেয়েছেন, স্বীকার করেও ধোঁয়াশা রাখলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

West Bengal Name Change: পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের প্রস্তাব পেয়েছেন, স্বীকার করেও ধোঁয়াশা রাখলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের প্রস্তাব৷

পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের প্রস্তাব৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবারই অভিযোগ করেন, কয়েকবছর আগেই বিধানসভায় নাম বদলের প্রস্তাব পাশ করে কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: রাজ্যের নাম বদল করে পশ্চিমবঙ্গ করার প্রস্তাব জমা পড়েছে। তৃণমূল সাংসদ সাজদা আহমেদের লিখিত প্রশ্নের জবাবে জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। তিনি জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে রাজ্যের নাম তিন ভাষাতেই বদল করে 'বাংলা' রাখার প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। যদিও এ নিয়ে কেন্দ্রের ভাবনাচিন্তা বা অগ্রগতি সম্পর্কে কিছু জানাননি নিত্যানন্দ রাই।

দীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যের নাম বদল করার জন্য দরবার করে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।রাজ্য বিধানসভায় নাম বদলের প্রস্তাব পাশ করে অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হয়েছে অনেক আগেই৷ রাজ্য সরকারের পাঠানো প্রস্তাব যে কেন্দ্রের কাছে পৌঁছেছে, তা স্বীকার করে নিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই৷

আরও পড়ুন: কয়লা পাচারকাণ্ডে লালা-সহ ৪১ জনের বিরুদ্ধে প্রথম চার্জশিট জমা দিল সিবিআই

মঙ্গলবার লোকসভায় এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের প্রস্তাব তাদের কাছে পৌঁছেছে৷ বাংলা, হিন্দি এবং ইংরেজি ভাষায় সেই প্রস্তাব মন্ত্রক পেয়েছে৷ একই সঙ্গে গত পাঁচ বছরে সরকার এলাহাবাদ-সহ সাতটি শহরের নাম বদলের পক্ষে সায় দিয়েছে বলেও জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷

আরও পড়ুন: ভয়াবহ দুর্নীতি ডাক্তারির NEET পরীক্ষায়! মেডিকেলের আসন বিক্রি হচ্ছে ২০ লাখ টাকায়!

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবারই অভিযোগ করেন, কয়েকবছর আগেই বিধানসভায় নাম বদলের প্রস্তাব পাশ করে কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হয়েছে৷ একবার সেই প্রস্তাব ফেরতও পাঠিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার৷ কিন্তু এত সবের পরেও নাম বদলের ব্যাপারে কেন্দ্র ইতিবাচক পদক্ষেপ করেনি ৷উল্লেখ্য, নাম বদলের বিষয়ে ২০১৮ সালের ১৫ ডিসেম্বর রাজ্য সরকারকে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি) দেওয়া হয়৷ রাজামুন্দ্রাই শহরের নাম রাজামহেন্দ্রবরম রাখার জন্য ২০১৭ সালের ৩ অগাস্ট অন্ধ্র সরকারকে এনওসি দেওয়া হয়৷ নগর উনতারির নাম বদলে বংশীধর নগর রাখায় ঝাড়খণ্ড সরকার ২০১৮ সালের অগস্টে কেন্দ্রের এনওসি পায়৷

মধ্যপ্রদেশের তিনটি শহর বীরশিঙ্গপুর পালি, হোশাঙ্গাবাদ নগর, বাবাই শহরের নাম পরিবর্তনের পর রাখা হয় যথাক্রমে মা বীরাসিনি ধাম (২০১৮), নর্মদাপুরম (২০২১) এবং মাখননগর (২০২১)৷ পঞ্জাবের শ্রী হরগোবিন্দপুর শহর বদলে শ্রী হরগোবিন্দপুর সাহিব নাম রাখার জন্য ২০২২ সালের মার্চে অনুমোদন দেওয়া হয়৷’

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Parliament, West bengal

পরবর্তী খবর