corona virus btn
corona virus btn
Loading

তাৎক্ষণিক তিন তালাক নিষিদ্ধ, আইনের খসড়া বিলে অনুমোদন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার

তাৎক্ষণিক তিন তালাক নিষিদ্ধ, আইনের খসড়া বিলে অনুমোদন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার
উত্তরপ্রদেশের হাপুর জেলায় স্বামীর বিরুদ্ধে তিন তালাকের অভিযোগ এনেছেন এক মহিলা । তাঁর অভিযোগ স্বামীর কাছ থেকে ওষুধ কেনার জন্য ৩০ টাকা চেয়েছিলেন তিনি ও তারপরই তাঁকে তিন তালাক দেন তাঁর স্বামী । শ্বশুরবাড়ি থেকেও বিতাড়িত করা হয়েছে তাঁকে ।
  • Share this:

 #নয়াদিল্লি: তাৎক্ষণিক তিন তালাক জামিন অযোগ্য শাস্তিযোগ্য অপরাধ। দোষী সাব্যস্ত হলে তিন বছরের কারাদণ্ড। শুধু তাই নয়, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা ও খোরপোষ দাবি করতে পারবেন স্ত্রী। এই সংস্থান রেখেই মুসলিম মহিলাদের বিয়ে সংক্রান্ত অধিকারের সুরক্ষা বিলকে সবুজ সংকেত দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। সংসদের শীতকালীন অধিবেশনেই এই বিল আনতে চলেছে সরকার।

তাৎক্ষণিক তিন তালাক অবৈধ এবং অসাংবিধানিক। বাইশে অগাস্ট দৃষ্টান্তমূলক রায় দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। কিন্তু এই রায় তিন তালাকে লাগাম পরাতে পারেনি। সুপ্রিম কোর্ট তালাক-এ-বিদ্দৎ-কে অবৈধ বলে রায় দিলেও এই কাজের জন্য শাস্তির কোনও বিধান নেই বর্তমান আইনে। এবং তারই সুযোগ নিয়ে মুখে বা চিঠিতে, ফোন বা ইন্টারনেটে এমন তালাক দেওয়ার ঘটনা আকছার ঘটছে। এবার আইন করে তা নিষিদ্ধ করতে সংসদের শীত অধিবেশনেই বিল আনতে চলেছে সরকার। প্রস্তাবিত বিলের নাম মুসলিম মহিলাদের বিবাহ সংক্রান্ত অধিকারের সুরক্ষা। শুক্রবার সেই খসড়া বিলকে অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। বিলে থাকছে,

তিন তালাক রুখতে বিল

- মৌখিকভাবে, লিখে, ইমেল, এসএমএস অথবা হোয়াটসঅ্যাপে তিন তালাক নিষিদ্ধ - জামিন অযোগ্য ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেব গণ্য হবে - ন্যূনতম ৩ বছরের কারাদণ্ড - পুলিশে অভিযোগ দায়েরের পর মামলা করতে পারবেন স্ত্রী - নিজের এবং সন্তানদের খোরপোষ দাবি করতে পারবেন

বিলের রূপরেখা নিয়ে সুপারিশ করতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে মন্ত্রিসভার একটি কমিটিও গড়া হয়। তাৎক্ষণিক তিন তালাক বা তালাক-এ-বিদ্দৎ দিলে ভারতীয় দণ্ডবিধিতে কী শাস্তির ব্যবস্থা রাখা দরকার, সে ব্যাপারে সুপারিশ জানায় মন্ত্রিসভার ওই কমিটি। এখানেই প্রশ্ন তুলেছে মুসলিম পার্সোনাল ল-বোর্ড। তাদের বক্তব্য, বিলের খসড়া তৈরিতে ইসলাম বিশেষজ্ঞদের সামিল করা হয়নি। ফলে এই বিল কোনওভাবেই ত্রুটিমুক্ত এবং স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে পারে না।

তিন তালাক বিল নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যেও যথেষ্ট মত বিরোধ রয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস, সমাজবাদী পার্টির মত, তাৎক্ষণিক তিন তালাক নিষিদ্ধ করার বিষয়টি চাপিয়ে দেওয়া উচিত নয়। মুসলিম সমাজের ভেতর থেকেই যাতে তিন তালাক বিরোধী স্বর উঠে আসে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা উচিত।

First published: December 15, 2017, 6:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर