'সংযম পালন করুন', কৃষক আন্দোলন নিয়ে কেন্দ্র-কৃষকদের বার্তা রাষ্ট্রপুঞ্জের

'সংযম পালন করুন', কৃষক আন্দোলন নিয়ে কেন্দ্র-কৃষকদের বার্তা রাষ্ট্রপুঞ্জের
ইতিমধ্যেই কৃষক বিক্ষোভকে সমর্থন জানিয়ে সম্প্রতি ট্যুইট বার্তা দিয়েছেন পপ তারকা রিহানা, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ-সহ একাধিক আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব

ইতিমধ্যেই কৃষক বিক্ষোভকে সমর্থন জানিয়ে সম্প্রতি ট্যুইট বার্তা দিয়েছেন পপ তারকা রিহানা, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ-সহ একাধিক আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভারতে ক্রমাগত চলতে থাকা কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিক্রিয়া আসছিলই। এ বার ময়দানে নামল রাষ্ট্রপুঞ্জ। সরকার এবং এবং বিক্ষোভকারী দু’পক্ষকেই ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের সংযম’ পালনের বার্তা দিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের মানবাধিকার দফতর।

    ইতিমধ্যেই কৃষক বিক্ষোভকে সমর্থন জানিয়ে সম্প্রতি ট্যুইট বার্তা দিয়েছেন পপ তারকা রিহানা, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ-সহ একাধিক আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব। সেই পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রপুঞ্জের এই পদক্ষেপ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

    শুক্রবার রাষ্ট্রপুঞ্জের তরফে একটি ট্যুইটে বলা হয়েছে, “ভারতে চলতে থাকা কৃষক বিক্ষোভে আমরা সরকার এবং বিক্ষোভকারী দু’ পক্ষের কাছেই সর্বোচ্চ পর্যায়ের সংযম পালনের আবেদন রাখছি। শুধু বাইরে নয়, অনলাইনেও  শান্তিপূর্ণ জমায়েত এবং মতপ্রকাশের অধিকার সুরক্ষিত থাকা উচিত। মানবাধিকারের কথা মাথায় রেখে ন্যায়সঙ্গত সমাধান খুঁজে বার করাই গুরুত্বপূর্ণ।”


    গত মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক মহলের নানা রকম প্রতিক্রিয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পালটা প্রতিক্রিয়া দিতে শুরু করে ভারত। এতে সামিল হন সচিন তেন্ডুলকর, লতা মঙ্গেশকর, অক্ষয় কুমার-সহ ক্রীড়া এবং বিনোদন জগতের একাধিক তারকা। কিন্তু এরপর প্রশ্ন উঠতে শুরু করে এই তারকারা কেন দু’মাস ধরে চলা কৃষি বিক্ষোভের সময়ে চুপচাপ ছিলেন।

    নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে দু’মাসেরও বেশি সময় ধরে দিল্লির সীমানায় জমায়েত করে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন কৃষকরা। ইতিমধ্যেই সমাধানের চেষ্টায় সরকার পক্ষের সঙ্গে ১১ দফা আলোচনা চালিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলি। কিন্তু কোনও সুরাহা মেলেনি।

    পরিস্থিতি অন্য দিকে মোড় নিতে শুরু করে গত ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসে। ওই দিন দিল্লির বুকে ট্র্যাক্টর র‌্যালি করেন কৃষকরা। বিক্ষোভকারীদের একাংশ লালকেল্লায় নিজেদের পতাকাও তোলেন৷

    Published by:Simli Dasgupta
    First published: