নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বাড়ছে ক্ষোভের আঁচ, উদ্বেগ প্রকাশ রাষ্ট্রপুঞ্জের

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বাড়ছে ক্ষোভের আঁচ, উদ্বেগ প্রকাশ রাষ্ট্রপুঞ্জের

রাষ্ট্রপুঞ্জের এই আধিকারিক জানিয়েছেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন চরিত্রগতভাবে বৈষম্যমূলক।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: কাশ্মীরে ৩৭০ ধারার পর এবার নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে বার্তা রাষ্ট্রসংঘের। এই বিল নিয়ে বহু মানুষের আশঙ্কার কথা জানিয়েই রাষ্ট্রসংঘের দাবি, ভারতের পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে। কূটনৈতিক ক্ষেত্রে যা ভারতের ওপর চাপ বাড়ানোর সামিল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ক্ষোভের আঁচ আরও ছড়াচ্ছে। এই আইনের বিরোধিতায় দেশের উত্তর পূর্বে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি। এরাজ্যেও সেই অশান্তিরও আঁচ। নতুন আইনের প্রতিবাদে উত্তাল বিভিন্ন জেলা। পুলিশের গাড়িতে আগুন, স্টেশনে ভাঙচুর এমনকি পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটল। এই আইনের বিরোধীতায় সরব হয়েছে বিভিন্ন মহল ৷ এবার উদ্বেগ প্রকাশ করল রাষ্ট্রপুঞ্জ ৷ তাদের মানবাধিকার সংক্রান্ত দফতর একটি বিবৃতি জানিয়ে এই আইনকে বৈষম্যমূলক বলে জানিয়েছে ৷

রাষ্ট্রপুঞ্জের এই আধিকারিক জানিয়েছেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন চরিত্রগতভাবে বৈষম্যমূলক। এই আইন নিয়ে তারা চিন্তিত ৷ এর আগে মার্কিন বিদেশ দফতরের তরফে মোদি সরকারকে স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছিল যাতে ভারতের সংখ্যালঘুদের অধিকার সুরক্ষিত থাকে ৷

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে যে সব হিন্দু, শিখ, জৈন, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, পার্সিরা এ দেশে এসেছেন, তাঁদের নাগরিকত্ব দিতেই এই বিল। কোনও মামলা চললে প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। যবেই আসুন নাগরিকত্ব দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন অমিত শাহ ৷

First published: 09:18:40 PM Dec 13, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर