বাগানে ঢোকার জন্য দুই বালকের মুখে জোর করে ঢুকিয়ে দেওয়া হল গোবর! চরম নিন্দায় নেটদুনিয়া

বাগানে ঢোকার জন্য দুই বালকের মুখে জোর করে ঢুকিয়ে দেওয়া হল গোবর! চরম নিন্দায় নেটদুনিয়া

দুই বালকের মুখে জোর করে ঢুকিয়ে দেওয়া হল গোবর

জানা যাচ্ছে ওই দুই বালকের পোষ্য কুকুর নিখোঁজ হয়ে যায়। সেই পোষ্যকে খুঁজতেই বৃহস্পতিবার আম বাগানে ঢুকেছিল দুই বালক।

  • Share this:

    #হায়দরাবাদ: বর্বরতার সীমা ছাড়ালো তেলেঙ্গানার একটি ঘটনা। আম বাগানে প্রবেশ করার জন্য দুই নাবালকের মুখে জোর করে পুরে দেওয়া হল গোবর। ঘটনায় অভিযুক্ত দুজনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনা তেলেঙ্গানার মহবুবাবাদে জেলার কান্টায়পালেম গ্রামের।

    জানা যাচ্ছে ওই দুই বালকের পোষ্য কুকুর নিখোঁজ হয়ে যায়। সেই পোষ্যকে খুঁজতেই বৃহস্পতিবার আম বাগানে ঢুকেছিল দুই বালক। সেই সময়েই যাকু এবং রামুলু নামে বাগানের দুই কেয়ারটেকার ওই দুই বালককে ধরে ফেলে। তারা ভাবে, ওই দুই বালক আম চুরি করতে বাগানে ঢুকে পড়েছে।

    দুই বালককে ধরার পরে তাদের দড়ি দিয়ে বাঁধে কেয়ারটেকার। তার পরে লাঠি দিয়ে মারধরও করে বলে অভিযোগ। এখানেই শেষ নয়। এর পরেই দুই বালকের মুখের মধ্যে জোর করে গোবর ঢুকিয়ে দেয় তারা। বালক দুজনের সারা মুখেও গোবর লেপে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

    এই পুরো ঘটমা নিজেদের ফোনে রেকর্ড করে অভিযুক্তরা। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় তারা শেয়ারও করে। ভিডিওটি ভাইরাল হয় এবং পুলিশের চোখে পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে অভিযুক্তেদর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করে পুলিশ। এর পরেই নাবালকদের বেঁধে নিগ্রহ করার জন্য যাকু ও রামুলু নামের দুই কেয়ারটেকারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

    কেয়ারটেকার দুজন ছাড়াও ওই ঘটনার সময়ে উপস্থিত আরও দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। কারণ তারা ওই ঘটনার ভিডিও মোবাইলে রেকর্ড করছিল। নির্যাতিত দুই বালক শিডুল কাস্ট গোষ্ঠীর। তাই এই ঘটনার পিছনে জাতপাতের কোনও বিষয় রয়েছে কি না সেটাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:
    0