• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ‘মাস্ক নয়, ভগবানকে ডাকুন!’ মাস্ক পরা নিয়ে মস্করা করে TikTok স্টার এখন করোনা আক্রান্ত

‘মাস্ক নয়, ভগবানকে ডাকুন!’ মাস্ক পরা নিয়ে মস্করা করে TikTok স্টার এখন করোনা আক্রান্ত

এখনও পর্যন্ত যতজন রোগী নিখোঁজ, সেই সংখ্যাটা শহরের মোট করোনা আক্রান্তের ৭ শতাংশ৷ বেপাত্তা এই রোগীদের খুঁজে বের করতে কালঘাম ছুটছে পুলিশ, প্রশাসনের৷

এখনও পর্যন্ত যতজন রোগী নিখোঁজ, সেই সংখ্যাটা শহরের মোট করোনা আক্রান্তের ৭ শতাংশ৷ বেপাত্তা এই রোগীদের খুঁজে বের করতে কালঘাম ছুটছে পুলিশ, প্রশাসনের৷

এখন ওই TikTok ভিডিওতে করা মন্তব্যের জন্য আফসোস করে বলেছেন আর কোনওদিন এমন ভিডিও বানাবেন না ৷

  • Share this:

    #সাগর: একে বলে ধর্মের কল বাতাসে নড়ে ৷ করোনা থেকে বাঁচতে মাস্ক পরে কি হবে বরং ভগবানকে ডাকুন ৷ নিজের TikTok ভিডিওতে মাস্ক পরা নিয়ে রীতিমতো মস্করা করার পর নিজেই এখন করোনা আক্রান্ত TikTok স্টার ৷ হাসপাতালের বেডে শুয়ে ২৫ বছরের ওই যুবক এখন ডাক্তারদের কাছে নিজের জীবন ভিক্ষা চাইছেন ৷ একইসঙ্গে ওই TikTok ভিডিওতে করা মন্তব্যের জন্য আফসোস করে বলেছেন আর কোনওদিন এমন ভিডিও বানাবেন না ৷

    মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা ২৫ বছরের ওই যুবক পেশায় একজন ইলেক্ট্রিসিয়ান৷ বুন্দেলখন্ড মেডিকেল কলেজে তিনি চিকিৎসাধীন ৷ কয়েকদিন আগে একটি টিকটক ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘এক টুকরো কাপড়ে নয় বরং ভগবানে বিশ্বাস রাখুন ৷’ রীতিমতো মাস্ক পরা নিয়ে মজা করতেও ছাড়েননি তিনি ৷ যুবকের ওই ভিডিও ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগেনি ৷

    ভিডিও পোস্টের পরই জব্বলপুরে দিদির বাড়ি যান ওই যুবক ৷ হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়েন সেখানে ৷ শরীরে ফুটে উঠে সংক্রমণের লক্ষণ ৷ দেরি না করে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় ৷ আইসোলেশন ওয়ার্ডে শুয়েও পুরো ব্যাপারটার গুরুত্ব বোঝেননি যুবক ৷ সেখান থেকেও ক্রমাগত ভিডিও শ্যুট করে আপলোড করে গিয়েছেন ৷ শুক্রবার তাঁর নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে কোভিড ১৯ পজিটিভ আসার পরই আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়েন তিনি৷

    আতঙ্কে বারবার চিকিৎসকদের কাছে নানা অনুনয়বিনয় করতে থাকেন বছর পঁচিশের ওই যুবক ৷ রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরই নিজের আগের ভিডিও করা মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে আরও দুটি ভিডিও আপলোড করেন তিনি ৷ ফলোয়ার দের কাছে তাঁর জন্য প্রার্থনার অনুরোধও জানান ৷ বলেন, ‘প্লিজ আমাকে মনে রাখবেন, আমার জন্য প্রার্থনা করবেন ৷’ এরপরই পুলিশ তাঁর থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ৷

    অন্যদিকে, কিভাবে ওই যুবকের শরীরে করোনা সংক্রমিত হল তা ভাবিয়ে তুলেছে চিকিৎসকদের ৷ পুলিশ যুবকের গত কয়েকদিনের গতিবিধি খতিয়ে দেখছে ৷ প্রশাসন আপাতত যুবকের পরিবার, মেডিক্যাল স্টাফ, প্রতিবেশি, বন্ধু সহ তাঁর সংস্পর্শে আসা ৫০ জনেরও বেশি মানুষকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছেন ৷ উল্লেখ্য, ওই জেলার প্রায় ২৫০-এরও বেশি মানুষ বাইরে থেকে আসার কারণে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৷

    Published by:Elina Datta
    First published: