• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • জাতীয় সড়কের বেহাল দশায় বিক্ষোভ, সরকারি কর্তাকে বেহাল রাস্তায় হাঁটালো তৃণমূল যুব কংগ্রেস

জাতীয় সড়কের বেহাল দশায় বিক্ষোভ, সরকারি কর্তাকে বেহাল রাস্তায় হাঁটালো তৃণমূল যুব কংগ্রেস

আন্দোলনকারীরা জানিয়ে দেন, জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের আমলাকে তাঁদের সঙ্গেই বেহাল রাস্তায় হাঁটতে হবে। সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে না দেখলে দপ্তর ঘেরাওমুক্ত করা হবে না।

আন্দোলনকারীরা জানিয়ে দেন, জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের আমলাকে তাঁদের সঙ্গেই বেহাল রাস্তায় হাঁটতে হবে। সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে না দেখলে দপ্তর ঘেরাওমুক্ত করা হবে না।

আন্দোলনকারীরা জানিয়ে দেন, জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের আমলাকে তাঁদের সঙ্গেই বেহাল রাস্তায় হাঁটতে হবে। সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে না দেখলে দপ্তর ঘেরাওমুক্ত করা হবে না।

  • Share this:

#মালদহ: মালদহে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের বেহাল অবস্থার প্রতিবাদে প্রজেক্ট ডাইরেক্টরের অফিস ঘেরাও অবস্থান যুব তৃ‌ণমূলের। জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের প্রজেক্ট ডিরেক্টরকে বেহাল রাস্তাতে হাটাল তৃণমূল যুব কংগ্রেস। মঙ্গলবার সকাল থেকে পুরাতন মালদহের মঙ্গলবাড়ী এলাকায় জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের অফিসের সামনে প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসূচি নেয় তৃণমূল যুব কংগ্রেস।

আন্দোলনের নেতৃত্বে ছিলেন জেলা তৃণমূল যুব সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস, পুরাতন মালদা পুরসভার প্রশাসক কার্তিক ঘোষ। অবিলম্বে, ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের সুজাপুর থেকে কালিয়াচক এবং মালদা শহর থেকে নারায়নপুর পর্যন্ত এলাকা সংস্কারের দাবি করে যুব তৃণমূল। যুব তৃণমূলের দাবি মেনে বেহাল রাস্তা হেঁটে দেখেন জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের প্রজেক্ট ডিরেক্টর দীনেশ কুমার হানসারিয়া। অবিলম্বে বেহাল রাস্তা মেরামতের আশ্বাস দেন জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের ওই আধিকারিক। তবে পুজোর আগেই রাস্তা সংস্কার না হলে ফের আন্দোলনের হুমকি দিয়েছে তৃণমূল যুব কংগ্রেস। এদিন সকাল থেকে মালদার মঙ্গলবাড়ী এলাকায় জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের অফিসের সামনে রীতিমতো মঞ্চ বেঁধে প্রতিবাদ সভা শুরু করে তৃণমূল যুব কংগ্রেস। সভা থেকে বেহাল রাস্তার জন্য দুর্ঘটনায় পরে যাঁরা জখম হয়েছেন তাঁদের ক্ষতিপূরণের দাবি তোলা হয়। বেলার দিকে আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধিদল জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের প্রজেক্ট ডিরেক্টরের সঙ্গে দেখা করে দাবি সনদ তুলে দেন।

সেখানে আন্দোলনকারীরা জানিয়ে দেন, জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের আমলাকে তাঁদের সঙ্গেই বেহাল রাস্তায় হাঁটতে হবে। সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে না দেখলে দপ্তর ঘেরাওমুক্ত করা হবে না। শেষপর্যন্ত আন্দোলনকারীদের দাবি মেনে বেহাল রাস্তায় নামেন জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের ওই পদস্থ আমলা। আবহাওয়া একটু শুকনো হলে রাস্তার গর্ত বোঝানোর কাজ শুরু করে দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। এরপর পরিস্থিতি শান্ত হয়। মালদা জেলা তৃণমূল যুব সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস বলেন, এদিন শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করা হয়েছে। রাস্তায় নিয়ে গিয়ে পরিস্থিতি স্বচক্ষে দেখানো হয়েছে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের প্রজেক্ট ডিরেক্টরকে । তবে এরপরও তাঁরা কোনো ব্যবস্থা না নিলে আরো বড় আন্দোলন হবে।

Sebak DebSarma

Published by:Uddalak Bhattacharya
First published: