Home /News /national /

আগামীকাল মায়াপুরের ইসকন মন্দিরে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী, স্বাগত জানাবেন ফোর্ড সংস্থার অন্যতম কর্ণধার আলফ্রেড

আগামীকাল মায়াপুরের ইসকন মন্দিরে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী, স্বাগত জানাবেন ফোর্ড সংস্থার অন্যতম কর্ণধার আলফ্রেড

File Photo

File Photo

আগামীকাল মায়াপুরের ইসকন মন্দিরে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী, স্বাগত জানাবেন ফোর্ড সংস্থার অন্যতম কর্ণধার আলফ্রেড

  • Share this:

     #মায়াপুর: ২ দিনের জন্য নদিয়া সফরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার প্রথমেই যাবেন মায়াপুরের ইসকন মন্দিরে ৷ সেখানে তাঁকে স্বাগত জানাবেন ফোর্ড গ্রুপ অফ কোম্পানিজের বোর্ড অফ ডিরেক্টরসের সদস্য আলফ্রেড ফোর্ড ও তাঁর স্ত্রী শর্মিলা ভট্টাচার্য ফোর্ড ৷

    গত ১০ বছর ধরে আলফ্রেডের চেষ্টাতেই মায়াপুরে গড়ে উঠছে বিশ্বের বৃহত্তম বৈদিক মন্দির। তিনি নিজে এই মন্দির নির্মাণের জন্য ৩০০ কোটি টাকা দান করেছেন ৷

    বিশ্বের বৃহত্তম বৈদিক মন্দির। গত ৮ বছর ধরে দিনরাত এক খাটছেন এক মার্কিনী। টাকা জোগাড় থেকে পরিকল্পনা - আলফ্রেড ব্রুস ফোর্ড তথা অম্বরিশ দাসের পরিকল্পনাতেই তৈরি হচ্ছে টেম্পল অফ দ্য ভেদিক প্ল্যানেটোরিয়াম। বিখ্যাত ফোর্ড সংস্থার অন্যতম কর্ণধার কেন সবকিছু ছেড়ে মজলেন কৃষ্ণপ্রেমে?

    বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যবসায়ী পরিবারে জন্ম। বর্তমানে ফোর্ড গ্রুপ অফ কোম্পানিজের বোর্ড অফ ডিরেক্টরসের সদস্য। সংস্থার শীর্ষপদে বসার সুযোগও ছিল। সেইভাবেই বড় হচ্ছিলেন আলফ্রেড ফোর্ড। ১৯৮৭ সালে হঠাৎই নিউ ইয়র্কের রাধা-কৃষ্ণ মন্দিরে যাওয়াটাই পালটে দিল সবকিছু।

    সংস্থার ১৯ শতাংশ শেয়ার তাঁর হাতে। সংস্থার তরফে কর্পোরেট দায়বদ্ধতা সংক্রান্ত কাজের দায়িত্বপ্রাপ্ত। রাতারাতি সব ছেড়েছুড়ে সন্ন্যাস নেওয়া। নাম বদলে রাখলেন অম্বরিশ দাস। বিয়েও করলেন এক বাঙালিকে। শর্মিলাও আলফ্রেডের প্রভাবে কৃষ্ণভাবে মজে। দুজনের আলাপও সেই মন্দিরেই।

    ব্যবসার জগতে ঢুকতে ঘোর অনীহা। তাই সংস্থার মূল ব্যবসার সঙ্গে কখনই জড়াননি। ধর্ম আর কৃষ্ণপ্রেমেই থেকেছেন বরাবর। হিন্দু ধর্ম আর ভগবান কৃষ্ণের মাহাত্ম্য প্রচার সঙ্গী তাঁর স্ত্রী ও পরিবারও। সততার অন্য নামই বিশ্বশান্তি। হিন্দুধর্মের এই সনাতন ধারণা ছড়িয়ে দেওয়াই এখন তাদের জীবনের লক্ষ্য।

    First published:

    Tags: CM Mamata Banerjee, Iskcon mandir, Mayapur ISKCON

    পরবর্তী খবর