• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • TMC YOUTH LEADERS DEBANGSHU BHATTACHARYA SUDIP RAHA JAYA DUTTA ARRESTED IN TRIPURA SB

Debangshu Bhattacharya Sudip Raha: 'আক্রান্ত' দেবাংশু-সুদীপরা এবার গ্রেফতার ত্রিপুরায়! আজ দেশের নজরে আগরতলা

এবার গ্রেফতার সুদীপরা

Debangshu Bhattacharya Sudip Raha: রাতভর প্রতিবাদ কর্মসূচির মধ্যেই ভোরে হঠাৎই দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা সহ ১১ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

  • Share this:

#ত্রিপুরা: বিজেপি শাসিত ত্রিপুরায় হামলার মুখে তৃণমূল যুব নেতারা। ইটের আঘাতে রক্তাক্ত তৃণমূল যুব নেতা সুদীপ রাহা, যুব নেত্রী জয়া দত্ত, আহত দেবাংশু ভট্টাচার্য। এই হামলার প্রতিবাদে এবং আক্রান্ত কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে রবিবারই ফের ত্রিপুরা যাচ্ছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্ষুব্ধ সাংসদ টুইটে সরাসরি চ্যালেঞ্জ করেছেন ত্রিপুরার বিপ্লব দেব প্রশাসনকে। এরই মাঝে রাতভর প্রতিবাদ কর্মসূচির মধ্যেই ভোরে হঠাৎই দেবাংশু, সুদীপ সহ ১১ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। তাঁদের মধ্যে আছেন ত্রিপুরা তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি আশিসলাল সিং। মহামারী আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁদের।

ত্রিপুরায় একের পর এক হামলার মুখে তৃণমূল। খোদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়ির উপর আক্রমণের পর এবার নিশানায় তৃণমূলের যুব নেতা-নেত্রীরা। ঘটনায় প্রশাসনের নিস্ক্রিয়তা নিয়ে সরব হয়েছিল জোড়াফুল শিবির। এই পরিস্থিতিতে ত্রিপুরায় আহত নেতা কর্মীদের মনোবল বাড়াতে প্রথমে ব্রাত্য বসু, কুণাল ঘোষকে ত্রিপুরা পাঠানোর নির্দেশ দেন অভিষেক। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই অভিষেক নিজেই জানান, মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে ত্রিপুরা যাবেন অভিষেক নিজেই।

টুইটে তিনি লেখেন, 'BJPর হিংস্র গুন্ডাদের হাতে আক্রান্ত কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে আমি ত্রিপুরায় আসছি। শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে এই লড়াই চালিয়ে যাব। এটাই আমার অঙ্গীকার। বিপ্লব দেবের ক্ষমতা থাকলে আটকান।' প্রসঙ্গত, শনিবার দুপুরে আক্রান্ত সিপিএম কর্মীদের দেখতে যাওয়ার পথে যুব তৃণমূল নেতাদের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। আর তাতেই আলোড়ন পড়ে। দেবাংশুদের গাড়ি লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়া হয় বলে অভিযোগ। ফেসবুক লাইভে দেবাংশু অভিযোগ করেন, হামলায় মাথা ফেটেছে যুব তৃণমূল নেতা সুদীপ রাহার । রক্তাক্ত হয়েছেন যুবনেত্রী জয়া দত্ত। তাঁর গাল ও কানে চোট লেগেছে বলে দেখা গিয়েছে ফেসবুক লাইভে। লাইভেই সরাসরি বিপ্লব দেব প্রশাসনের উপর ক্ষোভ উগরে বলেন, জঙ্গলরাজ চলছে ত্রিপুরায়। এরপরই দিনভর বিক্ষোভ সমাবেশে সামিল হন দেবাংশু। শেষে ভোর রাতে গ্রেফতার করা হয় তাঁদের।

তৃণমূলের আক্রান্ত নেতা-নেত্রীদের অভিযোগ, পুলিশি নিরাপত্তায় আমবাসা থেকে যখন তাঁরা ফিরছিলেন, সেই সময় ফের হামলা চালায় বিজেপি। গাড়ির ভাঙা জানালায় ফের বাঁশের বাড়ি মারা হয়। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ করে আক্রান্তদের দাবি, ত্রিপুরায় নিরাপদ নয় পুলিশও। দ্বিতীয়বারের হামলায় এক এসআই আহত হয়েছেন বলে দাবি যুব তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্যর।

Published by:Suman Biswas
First published: