• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • TMC WILL SIT IN DHARNA INFRONT OF GANDHI STATUE IN DELHI TOMORROW ABHISHEK BANERJEE LIKELY TO BE THERE AGAINST BJP SB

Tmc Bjp: সংসদে এবার বিষয় ত্রিপুরা, BJP-র 'রূপ' দেখাতে দিল্লিতে ঝড় তুলবে তৃণমূল!

খোয়াই থানায় অভিষেক, ব্রাত্যরা

Tmc Bjp: শনি ও রবিবার মিলে ত্রিপুরায় যা ঘটছে, তার বিরুদ্ধে সোমবার থেকেই সংসদে গান্ধি মূর্তির পাদদেশে ধরনায় বসতে চলেছে তৃণমূল।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ত্রিপুরাকে নিয়ে এবার দিল্লিতে ঝড় তোলার পরিকল্পনা নিল তৃণমূল। গত সোমবার ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়ির উপর বিজেপির হামলার প্রতিবাদে যা হয়নি, ১৪ জন নেতাকে ত্রিপুরায় গ্রেফতার ও হামলার প্রতিবাদে এবার সেই পথেই হাঁটতে চলেছে এ রাজ্যের শাসক দল। শনি ও রবিবার মিলে ত্রিপুরায় যা ঘটছে, তার বিরুদ্ধে সোমবার থেকেই সংসদে গান্ধি মূর্তির পাদদেশে ধরনায় বসতে চলেছে তৃণমূল। ত্রিপুরা থেকে দলের সমস্ত সাংসদকে এমনই নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা গিয়েছে, সোমবার সংসদের ধরনায় উপস্থিত থাকবেন অভিষেক নিজেও।

শুধু তাই নয়, চলতি বাদল অধিবেশনে পেগাসাস ইস্যুতে যেভাবে নাছোড় আন্দোলন চালাচ্ছে তৃণমূল, এবার সেই তালিকায় যোগ হতে চলেছে ত্রিপুরা কাণ্ডও। এমনটাই জানিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। তাঁর কথায়, 'ত্রিপুরায় ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটছে। গণতন্ত্র বলে কিছুই নেই। আমরা এর শেষ দেখে ছাড়ব। আমাদের যুব নেতাদের উপর যেভাবে হামলা হয়েছে, তারপর তাঁদের যেভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে, তা গণতন্ত্রের অপমান।' অর্থাৎ, একটা বিষয় স্পষ্ট, পেগাসাস ইস্যুতে যেভাবে বাকি বিরোধীদের পিছনে ফেলে আলো কেড়ে নিয়েছে তৃণমূল, ত্রিপুরা নিয়েও এবার গোটা দেশের নজর টানতে প্রস্তুত হচ্ছে তাঁরা।

এদিন ত্রিপুরার খোয়াই থানা, যেখানে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছিল দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহাদের, সেখানে ঢুকে ভারপ্রাপ্ত অফিসারদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পুলিশের সঙ্গে রীতিমতো তর্ক জুড়ে অভিযোগপত্র দেখতে চান অভিষেক। দীর্ঘক্ষণ থানাতেই আস্তানা গেড়েছেন তিনি। থানায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাজীব সেনগুপ্ত, এসডিপিও রাজীব সূত্রধরও ওসি মনোরঞ্জন দেববর্মাকে রীতিমতো হুঁশিয়ারির সুরে অভিষেক বলেন, 'তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে আপনি অভিযোগ দেখান। আমি এখানে বসে থাকব৷ আপনি হয় এদের থানা থেকে জামিন দিন, নয়তো জানান, অভিযোগ কী।' এরপরই সরাসরি অভিষেক বলেন, 'আপনি বিজেপির কথায় এটি করছেন।' তাঁর সুরে সুর মিলিয়েই দোলা সেন বলে ওঠেন,'আর মাত্র ১৭ মাস বাকি। কেন এখনও দালালি করছেন। বিজেপি-র দালালি ছাড়ুন।'

থানার বাইরে তখন বিজেপি কর্মীদের জমায়েত। তৃণমূলের গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগও ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধে। তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে মহামারী আইন প্রয়োগ হলে জমায়েত করা বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে কেন তা করা হবে না, সেই প্রশ্নও তোলেন অভিষেক। এমন সময় থানার মধ্যেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন যুব তৃণমূল নেতা সুদীপ রাহা। শনিবারের হামলায় মাথা ফেটে গিয়েছিল সুদীপের। সেই প্রসঙ্গ তুলে অভিষেক বলেন, 'নবীন প্রজন্মের ভবিষ্যৎ নষ্ট করছে বিজেপি সরকার।'

Published by:Suman Biswas
First published: