• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • TMC LEADERS OF TRIPURA SAID AS PER BJP INTRUCTIONS HOTEL AND SOUND SYSTEM NOT BOOKED FOR OPPOSITION SB

Tmc in Tripura: ত্রিপুরায় তৃণমূলকে হোটেল এবং সাউন্ড সিস্টেম দেওয়া 'বারণ'! 'যুদ্ধক্ষেত্রে' অভিষেক

আজ থেকে বদলাবে পরিস্থিতি?

Tmc in Tripura: এর আগে প্রথমবার ত্রিপুরা সফরেও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুষ্ঠানের জন্য সাউন্ড সিস্টেম না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এমনকী অভিষেকের সাংবাদিক বৈঠকের সময় বারবার ইলেকট্রিক চলে যেতেও দেখা যায়।

  • Share this:

#আগরতলা: মিশন ২০২৩। বাংলা জয়ের হ্যাটট্রিকের পর এবার তৃণমূলের নজরে বিজেপি শাসিত ত্রিপুরা। তারই সলতে পাকাতে দিন কয়েক আগেই ত্রিপুরায় গিয়েছিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথমে ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পুজো দেন তিনি। সেখানে পৌঁছানোর পথে প্রবল বাধার সম্মুখীন হতে হয় অভিষেককে। তাঁর গাড়িতে লাঠির গা পড়ে। ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দেওয়া হয়। সেই ঘটনার রেশ মিটতে না মিটতেই শনিবার ত্রিপুরায় আক্রান্ত হন দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহারা। রক্তাক্ত সেই হামলার প্রতিবাদে রবিবারই ফের ত্রিপুরায় যাচ্ছেন অভিষেক। আর অভিষেকের যাত্রার আগেই বিতর্ক তুঙ্গে ত্রিপুরায়। তৃণমূলের অভিযোগ, অভিষেকের সাংবাদিক সম্মেলনের জন্যে সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া দিতে বারণ করা হয়েছে। তৃণমূল নেতাদের গাড়ি ও হোটেল বুকিং দেওয়া যাবে না বিজেপির তরফে হুমকি দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ তৃণমূল নেতাদের। প্রসঙ্গত, এর আগে প্রথমবার ত্রিপুরা সফরেও অভিষেকের অনুষ্ঠানের জন্য সাউন্ড সিস্টেম না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এমনকী অভিষেকের সাংবাদিক বৈঠকের সময় বারবার ইলেকট্রিক চলে যেতেও দেখা যায়।

গত কয়েকদিন ধরেই সরগরম ত্রিপুরা। বিজেপিকে ক্রমাগত নিশানা করে চলেছে বাংলার শাসক দল। অভিষেকও বিজেপি শাসিত বিপ্লব দেব শাসনে ত্রিপুরার গণতান্ত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বারবার। প্রথমবারের সফরের সময়ই অভিষেক চ্যালেঞ্জের সুরে বলেছিলেন, 'বিজেপির দিল্লির নেতারা ত্রিপুরায় যতবার আসবে তার দ্বিগুন আসবো আমি। দরকারে প্রতি সপ্তাহে আসবো। দু’সপ্তাহ পর আবার এখানে আসব। চ্যালেঞ্জ দিচ্ছি। পারলে আটকান।' বাস্তবে সপ্তাহ পেরনোর আগেই ত্রিপুরায় পা রাখছেন অভিষেক। কিন্তু এবারও বিজেপির বিরুদ্ধে অভিষেকের সফর বানচাল করার চেষ্টার অভিযোগ তুলতে শুরু করেছে।

ত্রিপুরা যাওয়ার আগে কলকাতায় তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, 'তৃণমূলকে এভাবে রোখা যাবে না। আমাদের যাওয়ার আগেই শুনছি ট্রাভেল এজেন্সিগুলিকে গাড়ি দিতে বারণ করা হয়েছে। এমনকী হোটেলও ভাড়া দিতে বারণ করা হয়েছে। এ আমরা কোথায় আছি!' কুণাল ঘোষের অভিযোগ, ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাংবাদিক বৈঠকের জন্য হোটেল এবং সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া নিয়ে অসহযোগিতা করা হচ্ছে।

এর আগের বার ত্রিপুরা ছাড়ার আগে হুঁশিয়ারি দিয়ে অভিষেক বলে এসেছিলেন, যদি কোনও তৃণমূল কর্মীর গায়ে হাত পড়ে তাহলে তিনি চলে আসবেন সঙ্গেসঙ্গেই। কলকাতা থেকে তাঁর আসতে সময় লাগে মাত্র ১ ঘণ্টা। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ত্রিপুরা সফরে 'এবার ত্রিপুরা' ক্যাচলাইন বেঁধে দিয়ে গিয়েছেন। সেটা ধরেই এবার ঘাস ফুল ফোটাতে তৎপর রাজ্য নেতারা। তার দিনকয়েকের মধ্যেই ফের ত্রিপুরায় পা রাখছেন অভিষেক, আর তা আরও উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে।

Published by:Suman Biswas
First published: