গরু পাচারকাণ্ডে 'খেলা শুরু', ED-র হাতে গ্রেফতার 'প্রভাবশালী' তৃণমূল নেতার ভাই!

গরু পাচারকাণ্ডে 'খেলা শুরু', ED-র হাতে গ্রেফতার 'প্রভাবশালী' তৃণমূল নেতার ভাই!

গরু পাচারকাণ্ডে গ্রেফতারি

বিনয়ের ভাই বিকাশ মিশ্রকে গ্রেফতার করল ইডি। ফোনের টাওয়ারের লোকেশনের সূত্র ধরে দিল্লি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বিকাশকে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: গরু পাচার কাণ্ডে যুব তৃণমূল নেতা বিনয় মিশ্রের বিরুদ্ধে আগেই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিল সিবিআই। কিন্তু বিনয় এখনও বেপাত্তা। তাঁর খোঁজ মেলেনি এখনও। এরই মধ্যে বিনয়ের ভাই বিকাশ মিশ্রকে গ্রেফতার করল ইডি। ফোনের টাওয়ারের লোকেশনের সূত্র ধরে দিল্লি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বিকাশকে। তাঁকে ৬দিনের ট্রানজিট রিমান্ডে নিতে আবেদন জানিয়েছে ইডি। অপরদিকে, বিকাশের দাদা বিনয়ের এখনও খোঁজ না মেলায় তাঁর বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারির জন্য ইন্টারপোলের কাছে আবেদন করেছ সিবিআই।

    প্রসঙ্গত, গরুপাচারকাণ্ডের যুক্ত থাকার অভিযোগে দীর্ঘদিন ধরে যুব তৃণমূল নেতা বিনয় মিশ্র এবং তাঁর ভাই বিকাশ মিশ্রের উপর নজর রেখেছিল সিবিআই সহ বিভিন্ন তদন্তকারী সংস্থা। গত ২৫ জানুয়ারি নিজাম প্যালেস বিনয় মিশ্রের ভাই বিকাশ মিশ্র-কে জেরাও করা হয়। এরপরও তাঁকে দু'দফা জেরা করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার গোয়েন্দারা। কিন্তু বিকাশ মিশ্রের কোন উত্তরই সন্তুষ্ট করতে পারেনি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে। তদন্তকারীদের অনুমান, কয়লা এবং গরু পাচার চক্র সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে বিকাশেরও। ইডি সূত্রে খবর, কয়লা পাচার কাণ্ডে অন্যতম মূল অভিযুক্ত অনুপ মাঝি ওরফে লালা এবং গরু পাচার চক্রের অভিযুক্ত এনামূল হক, দুজনের সঙ্গেই বিনয় মিশ্রের যোগ রয়েছে। আর তাতেই সন্দেহ আরও ঘনীভূত হয়। সূত্রের খবর, বেশ কয়েকদিন ধরে বিনয়কে হাজিরা দিতে নির্দেশ দেওয়া হলেও এড়িয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। এরপর বেপাত্তা হয়ে যায় সে। সিবিআই আধিকারিকদের অনুমান, বিদেশেই গা ঢাকা দিয়েছেন বিনয়। এরই মাঝে তাঁর ভাই বিকাশকে গ্রেফতারের ঘটনা নতুন করে শোরগোল ফেলল।

    রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল অবশ্য আগেই অভিযোগ তুলেছে, নির্বাচন সামনে এলেই অতি সক্রিয় হয়ে ওঠে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলি। মূল অভিযোগের আঙুল বিজেপির দিকেই। স্বাভাবিকভাবেই বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে বিনয় মিশ্রের বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারি ও তাঁর ভাই বিকাশের গ্রেফতারি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহলের একাংশ। প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৩ জুলাই বিনয়কে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের রাজ্য কমিটির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক পদে নিয়োগ করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0