ক্ষমতায় এলে বাউল শিল্পীদের 'পুরস্কার'! কৈলাসের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে ফিরহাদ হাকিম

ক্ষমতায় এলে বাউল শিল্পীদের 'পুরস্কার'! কৈলাসের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে ফিরহাদ হাকিম

নির্বাচন কমিশনের অফিসে ফিরহাদ হাকিম। ছবি ভিডিও থেকে নেওয়া।

করোনা ভ্যাকসিনের শংসাপত্রে মোদির ছবি নিয়ে আপত্তি তুলেও অভিযোগ জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম।

  • Share this:

    #কলকাতা: দিন দুয়েক আগেই নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের অভিযোগ নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে কমিশনের নালিশ জানিয়েছিল বিজেপি। এবার নির্বাচন কমিশনে গেলেন পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও। তাঁর অভিযোগ, রাজ্য বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়র বিরুদ্ধে। ফিরহাদের দাবি, নির্বাচন কমিশনের নিয়ম ভেঙে কৈলাস বিজয়বর্গীয় একটি বিশেষ গোষ্ঠীকে আর্থিক প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।  অবশ্য শুধু কৈলাস বিজয়বর্গীয়ই নয়, করোনা ভ্যাকসিনের শংসাপত্রে মোদির ছবি নিয়ে আপত্তি তুলেও অভিযোগ জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম।

    ঘটনা মঙ্গলবারের।  এ দিন শহিদ মিনারের পাদদেশে ভারতের কীর্তন বাউল ভক্তিগীতি কল্যাণ ট্রাস্ট আয়োজিত এক সমাবেশে যোগদান করেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়। সেখানে কৈলাস বিজয়বর্গীয় নরেন্দ্র মোদির প্রসঙ্গ তুলে বলেন, ইতিমধ্যেই ৭০ বছরের বেশি বয়সের শিল্পীরা পেনশন পাচ্ছেন। বাংলায় বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এলে ষাটোর্ধ্ব শিল্পীরাও এই পেনশন পাবেন এবং প্রথম কেবিনেট বৈঠকেই এই নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে। একই সঙ্গে বিজেপির হয়ে স্লোগান তুলতেও দেখা যায় তাঁকে। এই নিয়েই ফিরহাদ কমিশনের দ্বারস্থ।

    ফিরহাদ হাকিম বলেন, "টিভিতে দেখলাম একটা অনুষ্ঠানে কৈলাস বিজয়বর্গীয় ভাতার কথা বলছেন। তিনি একটি দলের হয়ে কী ভাবে এই কথা বলতে পারেন? প্রশ্নগুলি আমরা নির্বাচন কমিশনে রেখেছি। আশা করি সুবিচার পাব। আশা করি ভারতের নির্বাচন কমিশন বিজেপির কথায় প্রভাবিত হবেন না।"

    প্রসঙ্গত দিন কয়েক আগেই ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে নির্বাচন কমিশনে গিয়েছিল বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে মুখ্য নির্বাচন আধিকারিককে চিঠি দিয়ে জানানো হয়, ফিরহাদ হাকিম নাকি নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন। বিজেপির অভিযোগ ছিল ফিরহাদ হাকিম নাকি সম্প্রতি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের একটি অনুষ্ঠানে প্রতিশ্রুতিমূলক কোনো মন্তব্য করেছিলেন। পাশাপাশি রাজ্য সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায়ের বিরুদ্ধেও কমিশনের বিধিভঙ্গের অভিযোগ এনেছিল বিজেপি।

    Published by:Arka Deb
    First published: