• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • TMC HAS MADE THE POSTER VISIBLE IN ALL THE WAY FROM AIRPORT JUST BEFORE NARENDRA MODI COMING FOR BRIGADE DD

মোদিকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত 'বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়'!

মোদিকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত 'বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়'!

Photo-News 18 Bangla

একদিকে তারকাখচিত ব্রিগেড আর অন্যদিকে মমতার পদযাত্রা ঘিরে সরগরম রবিবার।

  • Share this:

#কলকাতা : আজ মোদি'কে স্বাগত জানাবে "বাংলা তার নিজের মেয়েকে চায়"। দু'দিন আগেই ওয়ার্ড কো-অর্ডিনেটর দের সাথে বৈঠকে তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা নির্দেশ দিয়েছিলেন গোটা শহর মুড়ে ফেলতে হবে পোস্টার, ব্যানার, ফ্লেক্সে। সেই মোতাবেক দলীয় কর্মীরা গোটা শহরকে মুড়ে ফেলেছেন দলীয় পতাকা, ব্যানার, পোস্টারে। বিমানবন্দর থেকে আসার প্রধান রাস্তা ভি আই পি রোড ধরে এসপ্ল্যানেড বা ব্রিগেড মুখী হলেই দেখা যাবে রাস্তার দু'ধারে বাংলা নিজের মেয়েকেই চায় এর পোস্টার, বড় বড় ব্যানার আর ফ্লেক্স দিয়ে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে।

তবে পিছিয়ে নেই বিজেপিও। রাস্তা জুড়ে তারাও জাঁকিয়ে বসেছে। যেখানে শোভা পাচ্ছে নরেন্দ্র মোদি, দিলীপ ঘোষ, জে পি নাড্ডা, অমিত শাহের ছবি। এর পাশাপাশি মুকুল, কৈলাশ, রাজীব, শুভেন্দুর নানা ছবি দিয়ে সেজে উঠেছে মহানগরের রাস্তা। রাজনৈতিক মহলের মতে আসলে প্রেস্টিজ ফাইট লড়ছে দু'পক্ষই। ব্লকব্লাস্টার রবিবারে মমতা বন্দোপাধ্যায় যখন উত্তরের রাস্তায় প্রচার সারবেন। দক্ষিণে তখন মোদি প্রচারে ঝড় তুলবেন৷ বিজেপি নেতারা আক্রমণের সুরে বলছেন মোদির জন্যে কলকাতা ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। আর তৃণমূলের যুক্তি, ২রা মে'র পর বিজেপি পালিয়ে যাবে। গোটা রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন প্রান্তে যে তাদের নেত্রী আছেন সেটা বোঝাতেই তাই জোড়া ফুলের পোস্টার, ব্যানারে ছেয়ে ফেলা হয়েছে। তৃণমূলের এক প্রথম শ্রেণীর নেতার কথায় এখন ভোট ঘোষণা হয়ে গিয়েছে৷ আমাদের দলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হয়ে গিয়েছে। এই অবস্থায় আমরা আমাদের প্রচার চালাচ্ছি। এটাকে কে কি ভাবে ব্যাখ্যা করবেন তা আমরা জানি না।

তবে বিজেপির নেতাদের জানা উচিত বাংলা তার নিজের মেয়েকেই চায়।তবে শুধু কলকাতা শহরে নয়। গোটা রাজ্যেই ছেয়ে ফেলা হয়েছে এই পতাকা ব্যানার, পোস্টারে। মমতা বন্দোপাধ্যায় নিজেই শিলিগুড়ি থেকে সামিল হবেন পদযাত্রায়। একদিকে তারকাখচিত ব্রিগেড আর অন্যদিকে মমতার পদযাত্রা ঘিরে সরগরম রবিবার।

ABIR GHOSHAL

Published by:Debalina Datta
First published:

লেটেস্ট খবর