Home /News /national /
Meghalaya TMC: মেঘালয়ের দীর্ঘ দিনের দাবি নিয়ে আলোচনা হবে সংসদে, দাবি পূরণে খুশি তৃণমূল

Meghalaya TMC: মেঘালয়ের দীর্ঘ দিনের দাবি নিয়ে আলোচনা হবে সংসদে, দাবি পূরণে খুশি তৃণমূল

ভিন রাজ্যে তৃণমূলের সংগঠন মজবুত করাই লক্ষ্য অভিষেকের৷

ভিন রাজ্যে তৃণমূলের সংগঠন মজবুত করাই লক্ষ্য অভিষেকের৷

মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতারা দিল্লিতে রাজ্যের নির্দিষ্ট বিষয়গুলি উপস্থাপিত করার এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে,  সংসদে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলির মধ্যে একটি তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

  • Share this:

#ইম্ফল: তৃণমূলের টার্গেট মেঘালয়। তাই মেঘালয় সংক্রান্ত একাধিক ইস্যুতে তারা বারবার সরব হচ্ছে সংসদে৷ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের বক্তব্য, দিল্লিতে মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিবাদের ফলাফল পাওয়া গেল হাতেনাতে। অষ্টম তফসিলে গারো এবং খাসি ভাষার অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে আলোচনা করবে সংসদ। তাই এ কথা বলাই যায়, মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেস যা বলেছে, তাই করেছে।

মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতারা দিল্লিতে রাজ্যের নির্দিষ্ট বিষয়গুলি উপস্থাপিত করার এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে,  সংসদে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলির মধ্যে একটি তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তা হলো - জিরো আওয়ারে আলোচনার জন্য অষ্টম তফসিলে গারো এবং খাসি ভাষা অন্তর্ভুক্ত করা।

মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল সূত্রে খবর, গত ২৬ জুলাই,মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের একটি প্রতিনিধি দল মুকুল সাংমা এবং বিধায়ক জর্জ লিংডো-সহ , সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদদের সঙ্গে অসম-মেঘালয় সীমান্ত চুক্তি বাতিল এবং অষ্টম তফসিলে গারো ও খাসি ভাষার অন্তর্ভুক্তির দাবিতে সংসদের বাইরে একটি প্রতিবাদ সভা করেছিল।

আরও পড়ুন: স্বাধীনতা দিবসের আগেই বড় খবর! স্কুলে স্কুলে "জয়হিন্দ বাহিনী" তৈরির নির্দেশিকা স্কুল শিক্ষা দফতরের

মুকুল সাংমা বলেন, "ভাষা হল পরিচয়ের একটি অপরিহার্য অঙ্গ। গারো ও খাসি ভাষার অন্তর্ভুক্তি রাজ্যের যুব সমাজের জন্য কাজের সুযোগ বাড়াবে।"বেশ কিছু দিন আগে, ২৫ জুলাই, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েন মেঘালয়ের ভাষাগুলির বিষয়ে আলোচনা করার জন্য রাজ্যসভার মহাসচিবকে চিঠি লিখেছিলেন।

তাঁর সেই চিঠিতে তিনি লিখেছিলেন, "এই দেশের সরকারি ভাষা হিসেবে গারো এবং খাসি ভাষাকে বারবার অস্বীকার করার মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকার উত্তর-পূর্ব এবং বিশেষ করে মেঘালয়ের প্রতি যে তাচ্ছিল্যপূর্ণ ব্যবহার করে তা প্রমাণিত। রাজ্যের জনগণের বিশেষ মনোভাবের প্রতি তাদের চলতে থাকা ঔদাসীন্য এবং অজ্ঞতার জন্য আমি বর্তমান মেঘালয় সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র নিন্দা জানাই।'

আরও পড়ুন: ফের লক্ষ-লক্ষ টাকা উদ্ধার কলকাতায়! এ বার হেয়ার স্ট্রিটে সিআইডির অভিযানে বিস্ফোরক তথ্য

বেকারত্বের ইস্যুতে মেঘালয় ডেমোক্রেটিক অ্যালাইন্সের সরকারকে নিন্দা জানিয়ে তিনি আরো বলেছেন, "এই দু'টি ভাষার অন্তর্ভুক্তি, রাজ্যের জনগণকে উপকৃত করবে, কারণ এই ভাষা জাতীয় স্তরে একটি স্বীকৃত ভাষা হিসেবে উচ্চবিদ্যালয়ে পড়ানো যেতে পারে, প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার জন্য দ্বিতীয় ভাষা হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে এবং শিক্ষার্থীদের জন্য আরও কাজের সুযোগ করে দিতে পারে।"

এই বিষয়টি আজ সংসদে আলোচনার জন্য আসার সঙ্গে সঙ্গে, মেঘালয় প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেস নিজেকে একটি বিশ্বাসযোগ্য বিকল্প হিসেবে প্রমাণ করেছে যারা মেঘালয়ের নির্দিষ্ট বিষয়গুলিকে জাতীয় স্তরে তুলে ধরেছে এবং তা এগিয়ে নিয়ে যাবে। মুকুল সাংমা জানিয়েছেন,  মেঘালয় তৃণমূল কংগ্রেস যা করে দেখিয়েছে তা মেঘালয়ের ক্ষমতাসীন শাসক দল ক্ষমতায় আসার পর থেকে করতে ব্যর্থ হয়েছে।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Meghalaya, TMC

পরবর্তী খবর