• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ছোটখাটো অশান্তি, প্রায় ৮০ শতাংশ অংশগ্রহণ, পরের দফায় বুথে স্থানীয় এজেন্ট চাইছে তৃণমূল

ছোটখাটো অশান্তি, প্রায় ৮০ শতাংশ অংশগ্রহণ, পরের দফায় বুথে স্থানীয় এজেন্ট চাইছে তৃণমূল

কমিশনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিনিধিরা। ছবি ANI

কমিশনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিনিধিরা। ছবি ANI

বুথের ভোটারকে বুথের পোলিং এজেন্ট করা হোক বলে দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের।

  • Share this:

    #কলকাতা: বিক্ষিপ্ত অশান্তি, ভাঙচুর বাদ দিলে মোটামুটি নির্বিঘ্নেই শেষ হল বঙ্গের আট  দফা বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফা। আর এই প্রথম দফা থেকে শিক্ষা নিয়ে তৃণমূল চাইছে, দ্বিতীয় দফায় নির্বাচন কমিশনের নিয়ম বদলাক। বুথের ভোটারকে বুথের পোলিং এজেন্ট করা হোক বলে দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের।

    এ দিন সূর্য যখন মধ্য গগনে, চড়চড় করে পার পারদ চড়ছে প্রথম দফার‌ নির্বাচনের, বিভিন্ন জায়গা থেকে আসছে বিক্ষিপ্ত গন্ডগোলের খবর তখনই সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানাতে যায়। কমিশনকে তৃণমূলের ওই প্রতিনিধি দল জানায়, তাদের দাবি নির্দিষ্ট বুথের ভোটার কেই সেই বুথের পোলিং এজেন্ট করতে হবে। কারণ যে ব্যক্তি পোলিং এজেন্ট হবেন তার ওই এলাকা সম্পর্কে ধারণা থাকা প্রয়োজন। এতে এলাকার অন্যান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে সহমতের ভিত্তিতে তিনি কাজ করতে পারবেন। প্রয়োজন হলে তিনি এলাকাবাসীও মুখচেনা থাকায় তাঁর থেকে সাহায্য পাবেন।

    সূত্রের খবর কমিশন সূত্রে জানানো হয়েছে এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা। উল্লেখ্য বিজেপির অনুরোধেই কমিশন সম্মত হয়েছিল যে কোনও বুথের ভোটারকে যে কোনও বুথে এজেন্ট করার বিষয়ে।  রাজনৈতিক মহলের ব্যখ্যা, তৃণমূল  এর পাল্টা দিতে চাইছে সাংগঠনিক জোরের প্রশ্নে। কারণ তৃণমূলের শীর্ষস্তরের ধারণা, আপাত জনপ্রিয়তার মোড়কটা সরিয়ে রাখলে পরের দফা থেকে এই নিয়মে এলাকায় স্থানীয় এজেন্ট দেওয়া অসম্ভব হবে সাংগঠনিক দুর্বলতার কারণেই। আর সে‌টাই প্রকারন্তরে পক্ষে যাবে, আত্মবিশ্বাসী করবে স্থানীয় সমর্থকদের। সেই কারণেই এই প্রস্তাব।

    নির্বাচন কমিশন এখনও পরিসংখ্যান প্রকাশ না করলেও সূত্রের খবর এদিন তুল্যমূল্য ভোট পড়েছে ৮০ শতাংশ। তৃণমূল স্বতস্ফূর্ত এই ভোটদানকে সন্তোষজনক হিসেবেই দেখছে।  ছোটখাটো বিক্ষিপ্ত অশান্তি বাদ দিলে একমাত্র বড় ঘটনা কেশিয়ারির বিজেপি কর্মী মঙ্গল সোরেনের মৃত্যু। মঙ্গল সোরেনের মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে ৩০২ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। এছাড়া ১০টি গ্রেফতারির ঘটনা ঘটেছে পাঁচ জেলায়।

    Published by:Arka Deb
    First published: