• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • TMC COMPLAINT AGAINST BJP FOR ATTACKING THEIR WORKERS IN TRIPURA SB

Tripura Politics: ত্রিপুরায় চাপ বাড়তেই আগ্রাসী বিজেপি? কলেজে আক্রান্ত তৃণমূল! মহিলা কর্মী 'নিখোঁজ'

আক্রান্ত তৃণমূল

Tripura Politics: ত্রিপুরার এমবিবি কলেজে যুব তৃণমূলের সদস্যদের মারধর করা হয়েছে অভিযোগ উঠেছে। এক ছাত্রীর নিখোঁজ হওয়ার খবরও পাওয়া যাচ্ছিল। পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেছে বাংলার শাসক দল।

  • Share this:

    #কলকাতা: বাংলার বিরাট জয় সেরে তৃণমূলের লক্ষ্য এখন ত্রিপুরা। ইতিমধ্যেই ত্রিপুরায় তৃণমূলের অতিসক্রিয়তা সাড়া ফেলেছে গোটা দেশে। দুশ্চিন্তার বাতাবরণ ত্রিপুরা বিজেপির অন্দরেও। আর তৃণমূলের এই অতিসক্রিয়তার জেরে তাঁদের উপর লাগাতার হামলাও চলছে বলে অভিযোগ করেছে এ রাজ্যের শাসক দল। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন দল থেকে নেতা-কর্মীরা আসতেও শুরু করেছে তৃণমূলে। আর এমনই এক সময় ফের তৃণমূলের উপর হামলার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। ত্রিপুরার এমবিবি কলেজে যুব তৃণমূলের সদস্যদের মারধর করা হয়েছে অভিযোগ উঠেছে। এক ছাত্রীর নিখোঁজ হওয়ার খবরও পাওয়া যাচ্ছিল। পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেছে বাংলার শাসক দল।

    এর পরপরই আসরে নেমেছে তৃণমূল। তাঁদের অভিযোগ, গণতন্ত্রের নামে প্রহসন চলছে ত্রিপুরার মাটিতে। তৃণমূলের অভিযোগা, দলের ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতি নিচ্ছিল তাঁদের কর্মী, সমর্থকরা। সেই সময়ই আগরতলায় দলের যুব কর্মীদের উপর হামলা চালায় বিজেপির দুষ্কৃতীরা। ত্রিপুরাবাসী এই বর্বরোচিত হামলার যোগ্য জবাব দেবে বলে দাবি করেছে তৃণমূল। এই ঘটনার পরপরই ত্রিপুরায় পাঠানো হচ্ছে দলের সাংসদ শান্তনু সেনকে। আজ বিকেলেই ত্রিপুরা যাচ্ছেন শান্তনু।

    আরও পড়ুন: কলকাতায় ত্রিপুরার একঝাঁক BJP বিধায়ক! জোর জল্পনায় বিপ্লব দেবের 'সংখ্যাগরিষ্ঠতা'

    তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ জানিয়েছেন, ‘‘ত্রিপুরায় সংখ্যা গরিষ্ঠতা হারাচ্ছে বিজেপি। দিনক্ষণ দেখে ফেলে দিতে পারা যায়। তবে মানুষের সমর্থন নিয়ে তৃণমূল সরকার গঠন করবে। একাধিক বিজেপি নেতা বার্তা দিয়ে আসছেন। পরের পর যোগদান ও বৈঠকও চলছে। ফলে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতা দাবি করার জায়গায় থাকবে না ত্রিপুরায়।' শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন বিজেপি বিধায়ক কলকাতায় এসেছেন বলে খবর। তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁদের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

    বস্তুত, ত্রিপুরা বিজেপি এখন প্রবল গোষ্ঠীদ্বন্দ্বেও ভুগছে। তৃণমূল কি বিজেপির এই অন্তর্দ্বন্দ্বের ফয়দা তুলতে পারবে? রাজনৈতিক মহল বলছে, ২০২৪-এর মহারণের আগে ত্রিপুরাকে ওয়ার্ম আপ ম্যাচের মতো দেখছে তৃণমূল কংগ্রেস। ত্রিপুরায় জিততে পারলে দিল্লির মসনদও টলে যাবে বলে ধারণা তৃণমূলের অন্দর। তাই ত্রিপুরা জিততে চেষ্টার কসুর করছে এ রাজ্যের শাসক দল। ভোট এখনও অনেক দেরি হলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় লাগামছাড়া প্রচার চোখে পড়ছে তৃণমূলের তরফে।

    প্রতিদিন সব স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রথম পাতায় জায়গা করে নিচ্ছে তৃণমূলের খবর। সব মিলিয়ে ত্রিপুরায় কিস্তিমাতে নিত্যনতুন দান দিতে মরিয়া তৃণমূল। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূলের উপর একের পর এক হামলা আদতে তাঁদেরই সুবিধে করে দিচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকে। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে হামলা দিয়ে যে পর্ব শুরু হয়েছে ত্রিপুরায়, তা উত্তোরত্তর বাড়ছে, আর তার ফলেই আরও বেশি করে প্রচারের সুযোগ পেয়ে যাচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: