দেশীয় পণ্যকে করে তুলতে হবে বিশ্বমানের, বছরের শেষ মন কি বাতে বার্তা মোদির

দেশীয় পণ্যকে করে তুলতে হবে বিশ্বমানের , বছরের শেষ মন কি বাতে বার্তা মোদির

  • Share this:

    নয়াদিল্লি: ভারতে তৈরি পণ্যকে বিশ্বমানের করে তুলতে হবে৷ রবিবাসরীয় মন কি বাতে 'ভোকাল ফর লোকাল' মন্ত্রে ভর করে দেশীয়করণের ওপর জোর দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

    চলতি বছরের শেষ রেডিও অনুষ্ঠানে মোদি বললেন, "নির্মাতা ও শিল্প নেতাদের জানাতে চাই যে, দেশের প্রতিটি ঘরে যেন ভোকাল ফর লোকাল মন্ত্র ধ্বনিত হয়৷ আমাদের দেশীয় পণ্যকে বিশ্বমানের করে তুলতেই হবে৷ এই বিষয় আমরা বদ্ধপরিকর৷"

    মোদি আরও জানিয়েছেন যে, করোনা কালে ভারত অনেক বেশি করে আত্মনির্ভর হয়ে উঠেছে৷ তাঁর সংযোজন,“করোনার কারণে সারা বিশ্বের সরবরাহ চেইন ব্যাহত হয়েছে৷ তবে আমরা প্রতিটি সংকট থেকে নতুন শিক্ষা পেয়েছি। জাতিও নতুন সক্ষমতা বিকাশ করেছে। একেই বলা যায় ‘আতত্মনির্ভরতা’ বা স্বনির্ভরতা৷

    এদিনের অনুষ্ঠানে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণের বিষয়টাও জোর দিয়েছেন মোদি৷ তিনি জানিয়েছেন যে, বাঘ এবং সিংহের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে বেড়েছে৷ তবে এই কৃতিত্ব তিনি শুধু সরকারকেই দেননি৷ তাঁর বক্তব্য, যাঁরা বন ও বন্যপ্রাণ সংরক্ষণে নিজেদের অবদান রেখেছেন, এই কৃতিত্ব তাঁদেরও৷ মোদি বললেন, “ভারতে সিংহ ও বাঘের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে৷ শুধু সরকারই নয়, এর অবদান মানুষের, এই সমাজের ও অন্যান্য সংস্থাগুলির৷ যারা বন ও বন্যজীবন সংরক্ষণের জন্য ভেবেছে৷ ”

    মোদি তাঁর রেডিও ভাষণে শহীদ শ্রী গুরু গোবিন্দ সিংয়ের প্রসঙ্গও টেনে এনেছেন৷ মোদি বললেন, "শহীদ শ্রী গুরু গোবিন্দ সিংয়ের আত্মবলিদান আমাদের সভ্যতা রক্ষায় অসাধারণ কাজ করেছে৷ আমরা ওঁর কাছে ঋণী৷"

    মোদি আবারও দেশের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার জন্য সরকারের 'স্বচ্ছ ভারত অভিযান'-এর কথা বলেছেন৷ তিনি বলেছেন, যত্রতত্র জঞ্জাল ফেলা ও একবার ব্যবহার করা যায় এমন প্লাস্টিক থেকে বিরত থাকতে৷ দেশবাসীর উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, "আসুন আমরা শপথ নিই যে, আমরা যত্রতত্র জঞ্জাল ফেলব না৷ এটাই হবে 'স্বচ্ছ ভারত অভিযান'-এর সঙ্কল্প৷ আরও একটা কথা মনে করিয়ে দিতে চাই যে, করোনার জন্য একটা আলোচনা হয়নি সেভাবে৷ কিন্তু সেটা বলার সময় এসেছে৷ একবার ব্যবহার করা যায় এমন প্লাস্টিক থেকে দেশকে মুক্তি দিতে হবে৷"

    Published by:Subhapam Saha
    First published: