corona virus btn
corona virus btn
Loading

১০৫ বছর আগে থেকেই ভারতের এই প্রতিষ্ঠানে চলছে পিরিয়ড লিভের প্রথা

১০৫ বছর আগে থেকেই ভারতের এই প্রতিষ্ঠানে চলছে পিরিয়ড লিভের প্রথা

১০৫ বছর আগে থেকেই ভারতের এই প্রতিষ্ঠানে চলছে পিরিয়ড লিভের প্রথা

  • Share this:

 #তিরুবন্তপুরম: বাকি দেশের মতো ভারতেও পিরিয়ডের প্রথম দিন মেয়েদের ছুটি দেওয়া উচিত কি উচিত নয় এই তর্কবিতর্কে যখন উত্তাল চায়ের কাপের আড্ডা থেকে সোশ্যাল মিডিয়া ৷ অথচ ভারতের একটি প্রতিষ্ঠানে ১০০ বছরেরও বেশি সময় আগে থেকে চলে আসছে পিরিয়ড লিভ-এর প্রথা ৷

কেরালার এরনাকুলামের ত্রিপুনিতুরার ছোট্ট একটি সরকারি স্কুল ৷ তথ্য অনুযায়ী, ১৯১২ সাল থেকেই এই স্কুলে ঋতুস্রাব অর্থাৎ পিরিয়ডের প্রথমদিন ছাত্রী থেকে শিক্ষিকা সবার জন্যই ছুটির ব্যবস্থা রয়েছে ৷ এমনকি স্কুলে পরীক্ষা চলার সময় পিরিয়ড হলেও ছাত্রীকে ছুটি দিয়ে দেওয়া হয় ৷ শুধু তাই নয়, সেই ছাত্রীকে পরে পরীক্ষাটি দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেয় স্কুল ৷

সম্প্রতি পিরিয়ডের প্রথম দিন কর্মস্থলে মহিলাদের ছুটি দেওয়ার দাবি উঠলেও ১০৫ বছর ধরে এই প্রথা অনুসরণ করে আসছে কেরালার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ৷ কিন্তু কিভাবে ওই স্কুলে এমন নিয়ম চালু হল?

এই প্রশ্নের উত্তর মেলে ইতিহাসবিদ পি ভাস্করানুন্নির ‘কেরালা ইন দ্য নাইনটিনথ সেঞ্চুরি’ বইটি থেকে ৷ ১৯১২ সালে ত্রিপুনিতুরা স্কুলের তৎকালীন প্রধান শিক্ষক ভিপি বিশ্বনাথ আইয়ার পিরিয়ডের প্রথম দিন ছাত্রী ও শিক্ষিকাদের অনুপস্থিতির বিষয়টি লক্ষ্য করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে ওই দিনটির জন্য ছুটি চালু করার প্রস্তাব দেন ৷ প্রধান শিক্ষককের প্রস্তাবে সম্মত হয়ে ত্রিশূরের স্কুল ইনস্পেকটর পিরিয়ডের প্রথম দিন ছুটি চালু করতে অনুমতি দেন ৷

স্কুল ইনস্পেকটরের কাছে সবুজ সম্মতি পেতেই ত্রিপুনিতুরা স্কুলে চালু হয়ে যায় পিরিয়ড লিভ ৷ রীতিমতো নির্দেশিকা জারি করে ঘোষণা করা হয় বার্ষিক পরীক্ষার সময় কোনও ছাত্রীর পিরিয়ড হলে সে পরে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবে ৷

পিরিয়ড, মাসিক, ঋতুস্রাব যে নামেই ডাকা হোক না কেন, মহিলাদের এই স্বাভাবিক শারীরবৃত্তীয় আচরণ নিয়ে এ সমাজে ট্যাবুর অবসান আজও হয়নি ৷ আজও ঋতুমতী মহিলাদের সবরীমালা মন্দিরে প্রবেশ নিয়ে বিতর্ক ওঠে ৷ সেই সমাজে দাঁড়িয়ে ১০০ বছরেরও বেশি সময় আগে এমন ভাবনা ও এমন প্রথার শুরু করে নজির স্থাপন করেছে কেরালার ওই স্কুল ৷

First published: August 21, 2017, 5:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर