• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • বাবার ‘মহিমা’ ঘিরে ঘোর সন্দেহ, ডেরা থেকে মিলল যৌনশক্তিবর্ধক ওষুধ

বাবার ‘মহিমা’ ঘিরে ঘোর সন্দেহ, ডেরা থেকে মিলল যৌনশক্তিবর্ধক ওষুধ

 নামেই আশ্রম। আসলে প্রাসাদ। বিলাসব্যসন ও ব্যভিচারের সব উপকরণই থরে থরে সাজানো।

নামেই আশ্রম। আসলে প্রাসাদ। বিলাসব্যসন ও ব্যভিচারের সব উপকরণই থরে থরে সাজানো।

নামেই আশ্রম। আসলে প্রাসাদ। বিলাসব্যসন ও ব্যভিচারের সব উপকরণই থরে থরে সাজানো।

  • Share this:

    #রোহতক: নামেই আশ্রম। আসলে প্রাসাদ। বিলাসব্যসন ও ব্যভিচারের সব উপকরণই থরে থরে সাজানো। পালকের মতো নরম বিছানা। সঙ্গে যৌনশক্তিবর্ধক ওষুধ ও প্রসাধনী ভরতি কাবার্ড। গ্যাজেটস ভরতি রান্নাঘর। কেতাদুরস্ত ডাইনিংরুম। পাঁচকুলার সেক্টর তেইশে, বাবা রাম রহিম ইনসানের গুফায় তল্লাশি চালিয়ে এসবেরই খোঁজ পেল পুলিশ।

    আকাশে-বাতাসে ভক্তি ভাব। শিষ্যশিষ্যারা গদগদ। ভক্তিতে মাথা দোলাতেন ভক্তরাও। হরিয়ানার পাঁচকুলায়, সেক্টর তেইশে বাবা গুরমিত রাম রহিম সিং ইনসানের আশ্রমে এমনটাই ছিল দস্তুর। পাঁচকুলায় এলে এই আশ্রমেই থাকতেন বাবা রাম রহিম। বাবার সাধনার জন্য তাই তিল তিল করে তাঁর উপযুক্ত করে তোলা হয়েছিল এই আশ্রম। ঠিক কেমন ছিল আশ্রমের অন্দরমহল? বুধবার সেখানেই ঢুঁ দেয় পুলিশের একটি দল।

    পাঁচকুলায় বিরাট এলাকার ওপর দাঁড়িয়ে এই আশ্রম আসলে প্রাসাদ। ভেতরে ঢুকলেই নজরে আসবে রাজকীয় ডাইনিং রুম। লম্বা টেবলের ওপর থরে থরে সাজানো রাজ-ভোগের নানা সরঞ্জাম। মাঝে মাঝে কিছু ঘরের দরজা বন্ধ। তালা-চাবি নেই। ভক্তি ভুলে লাথি মেরেই দরজা খুললেন পুলিশকর্মীরা। দরজা ভাঙতেই অন্য ভুবনের সন্ধান। এটা বাবা রাম রহিমের শোওয়ার ঘর। একেবারে ভিআইপি রুম। তুলতুলে গদি আর দুধসাদা বিছানা। তথ্য বলছে, পাঁচকুলায় এলে এই ঘরই বাবার সাধন কক্ষ হয়ে উঠত। এরপর, আশ্রমের রান্নাঘরেও তল্লাশি চালান পুলিশকর্মীরা। অত্যাধুনিক গ্যাজেটস সমৃদ্ধ রান্নাঘর। পাশেই রয়েছে বাথরুম। সেখানে ঢুকে হতবাক পুলিশকর্মীরা। একটি বাথরুম আসলে একটি ঘরের আকার। স্নানের আধুনিক সব ব্যবস্থাই সেখানে রয়েছে। বাবার নিজস্ব ভঙ্গিতেই পাঁচকুলার এই আশ্রমে সাধনা ও সিদ্ধিলাভ চলত।

    কী মিলল পুলিশি তল্লাশিতে? - ত্রিপলে ঢাকা লেক্সাসের মতো বিলাসবহুল গাড়ি - গাড়িতে চালকের কেবিন আলাদা করা - গাড়িতে মহিলাদের অন্তর্বাস মিলেছে - মিলেছে কিছু যৌনশক্তিবর্ধক ওষুধও

    কয়েকজন কিশোরীকে ওই আশ্রম থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মিথ আর মিথ্যা। দুইয়ের ওপর ভর করেই গড়ে উঠেছিল বাবা রাম রহিমের মহিমা। সিবিআই কোর্টের রায়ের পর থেকেই সেই মহিমা ধাক্কা খেতে শুরু করেছে।

    First published: