করোনার দ্বিতীয় স্রোত কি আসছে! পশ্চিমবঙ্গ সহ ৭ রাজ্যে বিশেষ দল পাঠাচ্ছে কেন্দ্র

পশ্চিমবঙ্গ সহ ৭ রাজ্যে বিশেষ দল পাঠাচ্ছে কেন্দ্র। ছবি- রয়টার্স

৭ রাজ্যের জনস্বাস্থ্যের অবস্থা ঠিক কেমন সেই বিষয়টি পর্যালোচনা করতে একটি মাল্টিডিসিপ্লিনারি টিম পাঠাল কেন্দ্র। এই ৭টি রাজ্যের মধ্যে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, কেরল, তামিলনাড়ু, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট, পঞ্জাব, কর্ণাটক এবং জম্মু কাশ্মীরের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনা সংক্রমণ ফের বাড়ছে। দ্বিতীয় স্রোত কি আছড়ে পড়তে চলেছে, এই প্রশ্নই এখন মানুষের মনে। তাই ৭ রাজ্যের জনস্বাস্থ্যের অবস্থা ঠিক কেমন সেই বিষয়টি পর্যালোচনা করতে একটি মাল্টিডিসিপ্লিনারি টিম পাঠাল কেন্দ্র। এই ৭টি রাজ্যের মধ্যে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, কেরল, তামিলনাড়ু, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট, পঞ্জাব, কর্ণাটক এবং জম্মু কাশ্মীরের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল।

    কেন্দ্রের পাঠানো এই দলগুলি তিনজন সদস্য নিয়ে তৈরি। দলের প্রধান হিসেবে থাকছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রকের যুগ্ম-সচিব পর্যায়ের কর্মকর্তা। রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে জোট বেঁধেই কাজ করবে এই দলগুলি। মূলত, কেন করোনা সংক্রমণের হার বাড়ছে এবং করোনা সংক্রান্ত আরও কিছু বিষয় খতিয়ে দেখবে তারা। এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ রাজ্যগুলিকে একটি চিঠি লিখেছেন।

    করোনা সংক্রমণের শৃঙ্খল যাতে ভাঙা হয় সেই ব্যাপারে নজর দেওয়ার কথা বলেছেন তিনি রাজ্যাগুলিকে। মহারাষ্ট্র, কেরল, তামিলনাড়ু, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট, পঞ্জাব, কর্ণাটক এবং জম্মু কাশ্মীরের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল যাতে করোনার RT-PCR পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো হয়, সেই দিকেও নজর দিতে বলেছেন যাতে উপসর্গহীন আক্রান্তদের থেকে ছড়িয়ে না পড়ে ভাইরাস।

    রাজ্যের যে জেলাগুলিকে আক্রান্তের হার বেশি সেই জেলাগুলিতে RT-PCR এবং র‍্যাপিড টেস্ট করার কথা বলা হয়েছে কেন্দ্রের তরফ থেকে। কোনও আক্রান্ত ব্যক্তি শেষ পর্যন্ত নেগেটিভ হয়েছেন কি না তা বোঝার জন্যও পরীক্ষা করার কথা বলা হয়েছে। যাঁরা পজিটিভ তাঁদের আইসোলেশনে বা হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে। তাঁদের সংস্পর্শে যাঁরা এসেছেন তাঁদেরও পরীক্ষা করাতে হবে অবিলম্বে। এমনই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্যগুলিকে।

    গত এক সপ্তাহে পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, কেরল, তামিলনাড়ু, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট, পঞ্জাব, তেলেঙ্গানা, হরিয়ানা, দিল্লি, কর্ণাটক এবং জম্মু কাশ্মীরের কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ছাড়িয়েছে যা নতুন করে চিন্তায় ফেলেছে গোটা দেশকে। এদের মধ্যে মহারাষ্ট্র ও কেরলে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪০০০। তাই প্রতিটি রাজ্যে যাতে স্বাস্থ্যবিধি আরও জোরদার করা হয় সেই পরামর্শ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: