দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

কোভিড পরিস্থিতিতেও বিমানযাত্রায় ভয় ধীরে ধীরে কমছে, করোনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই বাড়ছে উৎসাহ!

কোভিড পরিস্থিতিতেও বিমানযাত্রায় ভয় ধীরে ধীরে কমছে, করোনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই বাড়ছে উৎসাহ!
File Photo

কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় থাকলেও বিমানযাত্রা নিয়ে সংশয় কাটছে যাত্রীদের।

  • Share this:

#কলকাতা: এ যেন কিছুটা হলেও শিশু এবং তার অভিভাবকের মধ্যে দ্বন্দ্বের মতো! অভিভাবক যে কাজটা করতে নিষেধ করেন, শিশুর সেটাই করার দিকে সারা ক্ষণ পড়ে থাকে মন! পরিণামে নানা সমস্যাতেও অবশ্য পড়তে হয় তাদের! সে রকমই দেশবাসীর বিমানযাত্রায় বাড়াবাড়ি রকমের উৎসাহ দেখে সরকারের তরফে শুরু হয়েছে নানা মিশন। যতটা সম্ভব, নিয়ম এবং নিষ্ঠা মেনেই খেয়াল রাখা হচ্ছে করোনাকালে যাত্রীসুরক্ষার বিষয়টি।

কিন্তু সাধারণ মানুষ এত কিছু ভাবছেনই না! সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্ট অনুযায়ী ৪২% বিমানযাত্রী সুরক্ষিত ভাবে যাত্রা করেছেন এবং ফের বিমানে চড়তে তাঁদের কোনও আপত্তি নেই। ইক্সিগো বলে একটি অনলাইন ট্র্যাভেল অ্যাগ্রিগেটর ৫০০০ যাত্রীর উপর এই সার্ভে করেছে। এঁদের বলা হচ্ছে আর্লি ট্র্যাভেলার অর্থাৎ যাঁরা জুলাই, অগাস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে করোনা-পরিস্থিতিতেই বিমানযাত্রা করেছেন।

ইক্সিগোর সহপ্রতিষ্ঠাতা ও সিটিও রজনীশ কুমার বলেছেন যে বিভিন্ন জায়গায় যাওয়ার চাহিদা আবার বাড়ছে। তাই তাঁরা চান যে তাঁদের গ্রাহকরা যেন কোনও বাধা ছাড়াই ফ্লাইট বুকিং করতে পারেন এবং যাতায়াত করতে পারেন।

বোঝাই যাচ্ছে সাফ- কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় থাকলেও বিমানযাত্রা নিয়ে সংশয় কাটছে। কারণ যাঁরা ইতিমধ্যেই বিমানযাত্রা করেছেন, তাঁরা আগামী তিন মাসে আবার বিমানে উঠতে চান (৪২%)। মে মাসে এই সংখ্যাটা ছিল মাত্র ১৬%।

এই রিপোর্ট আরও বলছে যে যাত্রীরা এতটা নিশ্চিন্ত হতে পারছেন কারণ তাঁরা দেখছেন যে বিমানবন্দর ও বিমানের মধ্যে সব রকমের স্বাস্থ্যবিধি কঠোর ভাবে পালন করা হচ্ছে। তথ্য বলছে ৪৬% যাত্রী বলেছেন ভবিষ্যতে ফ্লাইট বুকিং-এর সময় আরেকটা দিকেও খেয়াল রাখছেন। এমন সংস্থার ফ্লাইটই বুক করছেন তাঁরা যাতে পরিস্থিতির পরিবর্তন হলে বুকিং-এর টাকা পুরোটাই ফেরত পাওয়া যায়।

সমীক্ষা আরও বলছে- যাঁরা বিমানযাত্রা বেশি পছন্দ করছেন, তাঁদের মধ্যে ৬৪% লাইনে দাঁড়িয়ে সিকিওরিটি চেক ও ৫১% বিমানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার উপর জোর দিচ্ছেন। এঁদের মধ্যে মাত্র ৯% বিমানে খাওয়াদাওয়া নিয়ে চিন্তিত, বাথরুম ও পরিচ্ছন্নতা নিয়ে চিন্তিত ২৪% এবং বিমানবন্দর থেকে বাড়ি বা নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছনো নিয়ে চিন্তিত ২২%।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: October 9, 2020, 2:35 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर