মাঝ আকাশে জ্বালানি শেষ-মেশিন খারাপ-আবহাওয়াও-৩৭০ যাত্রী ও এক পাইলট!

এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্ল্যাগশিপ ফ্লাইট AI-101 দিল্লি থেকে টানা ১৫ ঘণ্টা উড়ে তখন নিউ ইয়র্ক বিমানবন্দরে অবরণের তোড়জোড় করছে৷ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি দূরত্বের উড়ান৷ ৩৮ মিনিট বাকি নিউ ইয়র্কের মাটি ছুঁতে৷ হঠাত্‍‌ রুস্তম দেখলেন, বিমানের জ্বালানি প্রায় শেষ৷

এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্ল্যাগশিপ ফ্লাইট AI-101 দিল্লি থেকে টানা ১৫ ঘণ্টা উড়ে তখন নিউ ইয়র্ক বিমানবন্দরে অবরণের তোড়জোড় করছে৷ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি দূরত্বের উড়ান৷ ৩৮ মিনিট বাকি নিউ ইয়র্কের মাটি ছুঁতে৷ হঠাত্‍‌ রুস্তম দেখলেন, বিমানের জ্বালানি প্রায় শেষ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: মাঝ আকাশে জ্বালানি শেষ৷ আবহাওয়া খারাপ৷ বিমানে যান্ত্রিক গোলযোগ ৷ ৩৭০ জন যাত্রী তখন প্রোমাদ গুনছেন৷ ১১ সেপ্টেম্বরের রাতটা ভুলবেন না এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলট ক্যাপ্টেন রুস্তম পালিয়া৷ আক্ষরিক অর্থেই দুঃস্বপ্নের রাত৷

    এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্ল্যাগশিপ ফ্লাইট AI-101 দিল্লি থেকে টানা ১৫ ঘণ্টা উড়ে তখন নিউ ইয়র্ক বিমানবন্দরে অবরণের তোড়জোড় করছে৷ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি দূরত্বের উড়ান৷ ৩৮ মিনিট বাকি নিউ ইয়র্কের মাটি ছুঁতে৷ হঠাত্‍‌ রুস্তম দেখলেন, বিমানের জ্বালানি প্রায় শেষ৷ অটোল্যান্ড কাজ করছে না৷ মাল্টিপল ইন্সট্রুমেন্ট ফেলিয়োর৷ ৩৭০ জন যাত্রীর জীবন তখন রুস্তমের হাতে৷ গোটা বিষয়টি নিউ ইয়র্ক এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোলকে জানালেন৷ নিজেকে শান্ত করলেন৷

    এ দিকে আবহাওয়া আরও খারাপ হচ্ছে৷ অটোস্পিড ব্রেকটিও কাজ করছে না৷ অতএব যে ভাবে হোক পাইলটকেই নামাতে হবে বিমানবন্দরে৷ সব যান্ত্রিক ত্রুটি ও তলানিতে থাকা জ্বালানি সমেত৷ সামনে খারাপ আবহাওয়ায় কিছু ভালো করে দেখাও যাচ্ছে না৷

    কোনও ক্রমে বিমানটি অবতরণ করান ক্যাপ্টেন পালিয়া৷ বেঁচে গেল ৩৭০ জন যাত্রীর প্রাণ৷ ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ৷ সংস্থার মুখপাত্র প্রবীণ ভাটনাগরের কথায়, “এয়ার ইন্ডিয়া ঘটনার তদন্ত কমিটি তৈরি করেছে৷ ফ্লাইট সেফটি ডিপার্টমেন্টও তদন্ত করছে৷ তবে এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলটকে অসংখ্য ধন্যবাদ পরিস্থিতি সামলা দেওয়ার জন্য৷”

    First published: