দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘লকডাউনে বাতিল বিমান-টিকিটের অর্থ ফেরত দিতে হবে বিমান সংস্থাকে’: সুপ্রিম কোর্ট

‘লকডাউনে বাতিল বিমান-টিকিটের অর্থ ফেরত দিতে হবে বিমান সংস্থাকে’: সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্টে বড়সড় ধাক্কা খেল এ দেশের বিমান পরিবহণের সঙ্গে যুক্ত সংস্থাগুলি।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্টে বড়সড় ধাক্কা খেল এ দেশের বিমান পরিবহণের সঙ্গে যুক্ত সংস্থাগুলি। একই সঙ্গে, শীর্ষ আদালতের রায়ে বড়সড় স্বস্তি পেলেন যাত্রীরাও। বৃহস্পতিবার শীর্ষ আদালত জানিয়ে দিয়েছে, লকডাউনের সময় বাতিল হওয়া উড়ানের টিকিটের পুরো অর্থ যাত্রীদের ফেরত দিতে হবে বিমান সংস্থাগুলিকে। এ জন্য কোনও ফি কাটা যাবে না। এ সংক্রান্ত ডিজিসিএ-র নির্দেশিকাতেই শিলমোহর দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এমনকী, রায়ের পরে তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে প্রয়োজনীয় বিজ্ঞপ্তিও জারি করার জন্য কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ দফতরকে নিরাদেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণের নেতৃত্বে গঠিত বেঞ্চ। টিকিটের পুরো টাকা অবশ্য ফেরত পাবেন শুধুমাত্র লকডাউনের সময় অর্থাৎ, ২৫ মার্চ থেকে ২৪ মে পর্যন্ত যে সব ফ্লাইটের টিকিট কেটেছিলেন যে সব যাত্রীরা, শুধুমাত্র তাঁরাই। তবে এই নির্দেশ কার্যকর হবে দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক, দু'ধরনের বিমানের টিকিটের ক্ষেত্রেই। এমনকী, রায়ে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট যাত্রী কবে টিকিট কেটেছেন, সেটাও এ ক্ষেত্রে বিচার্য নয়, উড়ানের সূচি যদি লকডাউনের মধ্যে হয়, তা হলে তার পুরো অর্থই ফেরত দিতে হবে। নির্দেশে বলা হয়েছে, বিমানের টিকিট যদি লকডাউনের মধ্যে কোনও দিনের কাটা হয় এবং তা কাটা হয় লকডাউন চলার সময়ে, তা হলেও সংশ্লিষ্ট যাত্রীকে পুরো টিকিটের টাকা ফেরত দিতে হবে। এমনকী, টিকিট যদি কোনও আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থার হয়, তা হলেও ওই সংস্থার এজেন্টকে বা সংশ্লিষ্ট যাত্রীকে তিন সপ্তাহের মধ্যে টিকিটের পুরো অর্থ ফেরত দিতে হবে। তবে এই টিকিটের অর্থ ফেরতের ক্ষেত্রে খানিক ছাড়ও দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। বেঞ্চ তার নির্দেশে বলেছে, যদি কোনও এয়ারলাইন্স সংস্থা আর্থিক ভাবে খুবই খারাপ অবস্থায় থাকে, সে ক্ষেত্রে তারা ওই টিকিটের অর্থ সংশ্লিষ্ট যাত্রীর ক্রেডিট সেলে ট্রান্সফার করতে পারেন। তবে ওই অর্থ যাত্রী 2021 সালের 31 মার্চ পর্যন্ত যে কোনও সময়, তাঁর পছন্দমতো ফ্লাইটের টিকিট কাটায় ব্যবহার করতে পারবেন। এমনকী, যাত্রী চাইলে ওই অর্থ তিনি কোনও ট্রাভেল এজেন্ট বা অন্য কোনও তাঁর পরিচিত যাত্রীকেও ব্যবহারের জন্য দিতে পারবেন। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে খুশি ডিজিসিএ কর্তারা। সংস্থার এক কর্তা বলেন, "লকডাউনে বিমান পরিষেবা বাতিল হওয়ায় যে ভাবে যাত্রীদের কাছ থেকে টিকিটের একাংশ অর্থ কেটে নেওয়া হচ্ছিল, তা অনৈতিক। শীর্ষ আদালতের রায়ে সেই তত্ত্বই শিলমোহর পেল।"

Published by: Akash Misra
First published: October 1, 2020, 10:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर