দেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

উড়ান বাতিলে টিকিটের টাকা ফেরত সংক্রান্ত মামলায় যা জানাল সুপ্রিম কোর্ট

উড়ান বাতিলে টিকিটের টাকা ফেরত সংক্রান্ত মামলায় যা জানাল সুপ্রিম কোর্ট
Representational Image

শীর্ষ আদালতে বিচারপতি অশোক ভূষণ, এস কে কৌল এবং এম আর শাহকে নিয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ সম্প্রতি এই রায় দিয়ে কেন্দ্রকে এ ব্যাপারে নির্দিষ্ট একটি অবস্থান নিতেও নির্দেশ দিয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: লকডাউনের কারণে যে সব যাত্রীকে বিমানের টিকিট বাতিল করতে হয়েছে, তাঁদের পুরো টিকিটের টাকা নগদে ফেরত দেওয়া কী প্রক্রিয়ায় হতে পারে, তা নিয়ে বিমান পরিবহণ সংস্থাগুলির সঙ্গে কেন্দ্রকে আলোচনায় বসার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালতে বিচারপতি অশোক ভূষণ, এস কে কৌল এবং এম আর শাহকে নিয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ সম্প্রতি এই রায় দিয়ে কেন্দ্রকে এ ব্যাপারে নির্দিষ্ট একটি অবস্থান নিতেও নির্দেশ দিয়েছে।

কোভিড-১৯-এর সংক্রমণের কারণে সারা দেশ জুড়ে লকডাউনের জেরে ২৫ মার্চ থেকে দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহণও পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে, আগে থেকে বিমানের টিকিট কেটেছিলেন যাঁরা, সেই সমস্ত যাত্রীরা ফাঁপড়ে পড়ে যান। ওই সব যাত্রীদের কেন্দ্র বারবার পুরো টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বললেও এয়ারলাইন্স সংস্থাগুলি তা এখনও দেয়নি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই টিকিটের অর্থ ক্রেতার ক্রেডিট সেলে রেখেছে সংস্থাগুলি। বলা হয়েছে, এক বছরের মধ্যে ওই টাকার পুরোটাই ব্যবহার করতে পারবেন ক্রেতারা।

কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের 'প্রবাসী লিগ্যাল সেল ২ মে-র যে সংস্থা এই প্রক্রিয়াকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবেদন করেছে, তাদের বক্তব্য, এই সিদ্ধান্ত ২০০৮ সালের মে মাসে তৈরি সিভিল অ্যাভিয়েশন রিকোয়ারমেন্টের একেবারেই পরিপন্থী। এই সংক্রান্ত যে নির্দেশিকা ডিজিসিএ সে সময়ে প্রকাশ করেছিল, তাতে স্পষ্ট বলা আছে, টিকিটের টাকা ফেরত হলে তা ক্রেডিট সেলে থাকবে কি না, তা একমাত্র সংশ্লিষ্ট যাত্রী সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ ব্যাপারে এয়ারলাইন্স সংস্থার সিদ্ধান্ত নেওয়ার কোনও অধিকার নেই। স্বভাবতই ওই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার দাবি, এই সিদ্ধান্ত একতরফা ভাবে নিয়ে এয়ারলাইন্স সংস্থাগুলি যাত্রীদের সাংবিধানিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করেছে।

এখানেই শেষ নয়, পুরো প্রক্রিয়ার জন্য স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কেন্দ্রকেও দায়ী করেছে। ওই সংস্থা শীর্ষ আদালতের কাছে করা আবেদনে বলেছে কেন্দ্র বিমান পরিবহণ সংস্থাগুলিকে লকডাউনের মধ্যে যাঁরা বিমানের বুকিং করেছেন, তাঁদের পুরো টাকা ফেরতের কথা বলেছে কিন্তু লকডাউন ঘোষণার আগে যাঁরা টিকিট কেটেছেন, তাঁদের সম্পর্কে সুস্পষ্ট কোনও মতামত দেয়নি কেন্দ্র। সংস্থার দাবি, 'এ ব্যাপারে সুস্পষ্ট কোনও নির্দেশ না দিয়ে পক্ষান্তরে এয়ারলাইন্স সংস্থাগুলিকে ক্রেডিট সেল ব্যবহারেই উৎসাহ দিয়েছে কেন্দ্র, যা কার্যত ডিজিসিএ-র নিয়ম লঙ্ঘনের সামিল।'

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার এই আবেদন শোনার পরেই শীর্ষ আদালত বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রককে বিমান সংস্থাগুলির সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে পুরো টাকা ফেরতের প্রক্রিয়া নিয়ে কথা বলার নির্দেশ দেয়। এ বিষয়ে আদালত তিন সপ্তাহ পরে ফের শুনবে বলে জানিয়ে দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ।

Shalini Datta

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: June 14, 2020, 9:11 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर