দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

সিবিআই তদন্তে রাজ্যের সম্মতি বাধ্যতামূলক, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট

সিবিআই তদন্তে রাজ্যের সম্মতি বাধ্যতামূলক, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট
প্রতীকী ছবি{

উত্তর প্রদেশের সরকারি আধিকারিকদের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগ সংক্রান্ত একটি মামলায় এই রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷

  • Share this:
#নয়াদিল্লি: রাজ্যের সম্মতি ছাড়া কোনও তদন্তে হস্তক্ষেপ করতে পারবে না সিবিআই৷ তাৎরপর্য্যপূর্ণ রায়ে জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট৷ শীর্ষ কোর্টের এই নির্দেশ বিরোধী শাসিত রাজ্যগুলির কাছে যেমন স্বস্তির, সেরকমই তা বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে বড় ধাক্কা৷ বিরোধীদের বিরুদ্ধে সিবিআই-এর অপব্যবহারের অভিযোগ বার বারই তুলেছে বিরোধীরা৷ এই পরিপ্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালতের এই রায় যথেষ্টই তাৎপর্য্যপূর্ণ৷

উত্তর প্রদেশের সরকারি আধিকারিকদের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগ সংক্রান্ত একটি মামলায় এই রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ রায়ে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, 'আইন অনুযায়ী, রাজ্যের সম্মতি ছাড়া সিবিআই-কে কোনও মামলায় যুক্ত করতে পারে না কেন্দ্র৷ এ বিষয়ে রাজ্যের সম্মতি বাধ্যতামূলক৷ সংবিধানে উল্লেখিত যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই এই আইন তৈরি করা হয়েছে৷' শীর্ষ আদালত স্পষ্ট করে দিয়েছে, রাজ্য সরকারের অনুমতি ছাড়া কোনও মামলায় সিবিআই-এর তদন্তের পরিধিও বাড়াতে পারবে না কেন্দ্রীয় সরকার৷

পশ্চিমবঙ্গ, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড, ছত্তীসগড়, কেরল, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব এবং মিজোরাম- সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিতে গেলে তাদের অনুমতি বাধ্যতামূলক করেছে বিরোধী শাসিত এই আটটি রাজ্য৷ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এ এম খানউইলকর এবং বিচারপতি বি আর গভাই দিল্লি স্পেশাল পুলিশ এস্ট্যাবলিশমেন্ট অ্যাক্ট-এর কথা উল্লেখ করে এই রায় দিয়েছেন৷ এই আইনের দ্বারাই সিবিআই-কে নিয়ন্ত্রণ করা হয়৷

২০১৯ সালের অগাস্ট মাসে এলাহাবাদ হাইকোর্টের দেওয়া একটি মামলার রায়ের বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টে এই মামলা দায়ের করা হয়েছিল৷ সেই মামলাতেই এই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ একটি বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে কয়লা বিক্রির ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল৷ ওই মামলায় রাজ্য সরকারের দুই অফিসারেরও নাম জড়ায়৷ ওই সংস্থায় আচমকা হানা দিয়ে সিবিআই জানতে পারে, কোল ইন্ডিয়ার থেকে চুক্তির ভিত্তিতে পাওয়া কয়লা কালো বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে৷

সিবিআই-এর পদক্ষেপের বিরোধিতা করে ওই অভিযুক্ত অফিসার আদালতের দ্বারস্থ হন৷ তাঁদের দাবি ছিল, সিবিআই তদন্তের জন্য রাজ্য সরকার যে সাধারণ সম্মতি দিয়ে রেখেছে, তা যথেষ্ট নয়৷ এই ধরনের তদন্ত করার জন্য রাজ্যের থেকে সিবিআই-এর আলাদা করে অনুমতি নেওয়া প্রয়োজন৷ এলাহাবাদ হাইকোর্ট এই মামলার রায় দিতে গিয়ে জানিয়েছিল, রাজ্য সরকার সিবিআই-কে যে সাধারণ সম্মতি দিয়ে রেখেছিল, সেটাই যথেষ্ট৷ পরে ওই দুই অফিসারের নাম চার্জশিটেও রাখা হয়৷ যদিও, এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ের বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন ওই দুই সরকারি অফিসার৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: November 19, 2020, 11:48 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर