Covid-19: স্কুল-কলেজের পড়ুয়ারা একসঙ্গে আক্রান্ত হচ্ছে! করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগে গোটা দেশ

Covid-19: স্কুল-কলেজের পড়ুয়ারা একসঙ্গে আক্রান্ত হচ্ছে! করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগে গোটা দেশ

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে উদ্বেগে গোটা দেশ

যেভাবে করোনা সংক্রমণ আবার বাড়ছে তাতে চিন্তায় পড়েছে সারা দেশের মানুষ। বাদ নেই রাজধানী দিল্লিও। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত সেন্ট স্টিফেনস কলেজে ১৩ জন পড়ুয়া একসঙ্গে করোনা আক্রান্ত হলেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: যেভাবে করোনা সংক্রমণ আবার বাড়ছে তাতে চিন্তায় পড়েছে সারা দেশের মানুষ। বাদ নেই রাজধানী দিল্লিও। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত সেন্ট স্টিফেনস কলেজে ১৩ জন পড়ুয়া একসঙ্গে করোনা আক্রান্ত হলেন। প্রত্যেকেরই রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গিয়েছে। গত সপ্তাহে এই ১৩ জন পড়ুয়া ডালহৌসি বেড়াতে গিয়েছিলেন। কলেজের অধ্যাপক ও বাড়ির অভিভাবকের অনুমতি নিয়েই তাঁরা বেড়াতে গিয়েছিলেন।

    ডালহৌসি থেকে ফেরার পরেই তাঁদের মধ্যে কিছু উপসর্গ দেখা যায়। আর তার পরেই তাঁরা করোনা পরীক্ষা করান এবং ১৩ জনেরই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এদের প্রত্যেককেই কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কলেজের শিক্ষক শিক্ষিকাদেরও আসতে না করা হয়েছে করোনা সংক্রমণ এড়িয়ে চলার জন্য।

    অন্যদিকে কর্ণাটকেও চিন্তা বাড়াচ্ছে করোনা। কর্ণাটকের একটি স্কুলে একসঙ্গে ২৬ জন পড়ুয়া কোভিড আক্রান্ত হয়েছে। শনিবার কর্ণাটকের দাভানগিরে জেলার বাসবনাহাল্লি স্কুলের ২৬ জন পড়ুয়ার রিপোর্ট পডিটিভ আসে। পড়ুয়াদের রিপোর্ট পজিটিভ আসার সঙ্গে সঙ্গে গোটা স্কুলের সমস্ত ক্লাস সাসপেন্ড করেছে কর্তৃপক্ষ। সংক্রমণ যাতে আরও না ছড়িয়ে পড়ে সেই দিকে নিয়ন্ত্রণ আনতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

    কোভিড নিয়ন্ত্রণে আনতে শুক্রবার কর্ণাটক সরকার বেশ কিছু বিষয়ে ফের কড়া নিয়ন্ত্রণ আনার কথা জানিয়েছে। প্রাথমিক ও সেকেন্ডারি স্কুল সহ স্কুলের হস্টেলেও কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যে যে নিষেধাজ্ঞার কথা ঘোষণা করেছে কর্ণাটক সরকার সেগুলি আগামী ২০ এপ্রিল পর্যন্ত বজায় থাকবে বলে জানা যাচ্ছে।

    জিম, পার্টি হল, ক্লাব, সুইমিং পুল এই মুহূর্তে বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে ইয়েদুরাপ্পা সরকার। বাসেও যাতে যেকটি আসন রয়েছে তার থেকে বেশি লোক না থাকে সেই দিকে নজর রাখা হবে। শুক্রবার শুধু কর্ণাটকে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯৯১ জন। এই আক্রান্ত দের মধ্যে ৩৫০৯ জন বেঙ্গালুরুর শহুরে অঞ্চলের বাসিন্দা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত হয়েছে ৯০ হাজার মানুষ।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    লেটেস্ট খবর