করোনার বালাই নেই, মুদির দোকানে শয়ে শয়ে লোক ঘুরে বেড়াচ্ছে! কড়া পদক্ষেপ পুলিশের

করোনার বালাই নেই, মুদির দোকানে শয়ে শয়ে লোক ঘুরে বেড়াচ্ছে! কড়া পদক্ষেপ পুলিশের
প্রতীকী ছবি

একদিকে রাজ্য জুড়ে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় প্রতিনিয়ত সতর্ক করছে সরকার। তখনই এই বড় গ্রসারি স্টোরে প্রায় ৯০০ জন মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এবং এত ভিড়ের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় ছিল না। পাশাপাশি অনেকের মুখেই ছিল না মাস্ক। এই ঘটনা নজরে আসতেই ওই দোকানের ম্যানেজারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

  • Share this:

    #মুম্বই: মহারাষ্ট্রে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। নতুন করে এই ভাইরাস মাথা চাড়া দিয়ে ওঠায় নড়েচড়ে বসেছে মহারাষ্ট্র সরকার। অমরাবতীতে ইতিমধ্যে সাতদিনের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে লকডাউন। এরই মধ্যে একটি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানের ম্যানেজারকে করোনা স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘণ করার জন্য গ্রেফতার করল মহারাষ্ট্র কল্যাণ পুলিশ।

    একদিকে রাজ্য জুড়ে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় প্রতিনিয়ত সতর্ক করছে সরকার। তখনই এই বড় গ্রসারি স্টোরে প্রায় ৯০০ জন মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এবং এত ভিড়ের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় ছিল না। পাশাপাশি অনেকের মুখেই ছিল না মাস্ক। এই ঘটনা নজরে আসতেই ওই দোকানের ম্যানেজারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

    জানা যাচ্ছে, ওই দোকানে ব্যাপক ভিড়ের খবর জানতেই না জানিয়েই হঠাৎ পৌঁছে যায় পুলিশ। মহারাষ্ট্রের বেল বাজারে শুক্রবার এই ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ আধিকারিক এনকে বানকার বলেছেন, আমরা দেখেছি প্রায় ৯০০ জন মানুষ সেই সময়ে এই স্টোরে উপস্থিত ছিলেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছিল না।


    দোকান বাজার খুলে গেলেও বার বার মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখতে বলা হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতেই সামাজিক দূরত্ব রাখতে বলা হচ্ছে। যে ভাবে মহারাষ্ট্রে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, তাতে বেশ কিছু অঞ্চলে নাইট কার্ফু জারি করা হয়েছে।

    পুলিশ আধিকারিক বানকার আরও বলছেন, অন্যান্য দোকান ও স্টোরেও এভাবেই আমরা হঠাৎ গিয়ে হাজির হব। দেখব ঠিকঠাক স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কি না তা দেখা হবে।

    গত শনি ও রবিবারও বেশ কিছু দোকানে পুলিশ টহল দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গত সপ্তাহে মহারাষ্ট্রের মানপাডা পুলিশ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। ওই চারজন বিজেপির এক নেতার জন্মদিনে ছিলেন যেখানে ৫০০ জন উপস্থিত ছিলেন।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: