"রাজনৈতিক খুন বন্ধ হোক, টার্গেট করে খুন বন্ধ হোক", বৈঠকে মুখ্যসচিবকে বার্তা রাজ্যপালের

রবিবার ব্যারাকপুরে বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লা খুন হওয়ার পরপরই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব ও ডিজিকে তলব করেন। রবিবার রাতেই ট্যুইট করে গোটা ঘটনাকে 'কাপুরুষোচিত' বলেও মন্তব্য করেন।

রবিবার ব্যারাকপুরে বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লা খুন হওয়ার পরপরই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব ও ডিজিকে তলব করেন। রবিবার রাতেই ট্যুইট করে গোটা ঘটনাকে 'কাপুরুষোচিত' বলেও মন্তব্য করেন।

  • Share this:

#কলকাতা: স্বরাষ্ট্রসচিব বা ডিজি নয়, সোমবার সকালে রাজভবনে সরাসরি রাজ্যপালের সঙ্গে আলোচনা করতে  চলে গিয়েছিলেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় । রবিবার ব্যারাকপুরে বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লা খুন হওয়ার পরপরই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব ও ডিজিকে তলব করেন। রবিবার রাতেই ট্যুইট করে গোটা ঘটনাকে 'কাপুরুষোচিত' বলেও মন্তব্য করেন।

রবিবার রাতেই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে ট্যুইট  করে উদ্বেগের কথা জানান রাজ্যপাল । সোমবার সকাল দশটা নাগাদ রাজ্য পুলিশের ডিজি এবং স্বরাষ্ট্র সচিব আসার কথা থাকলেও নির্দিষ্ট সময়ে না আসায় হতাশা ব্যঞ্জক  ট্যুইট করেন রাজ্যপাল। কিন্তু সেই ট্যুইটের কিছুক্ষণ বাদেই রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় রাজভবনে পৌঁছে যান। প্রায় আড়াই ঘন্টা সোমবার মুখ্য সচিবের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যপাল।

বৈঠকে কী কী বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে সেই বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে জানা না গেলেও রাজভবন সূত্রের খবর  ব্যারাকপুরের বিজেপি নেতা মনিশ শুক্লার খুনের ঘটনার প্রেক্ষিতে এদিন দীর্ঘ আলোচনা হয় মুখ্য সচিবের সঙ্গে। গোটা ঘটনায় রাজ্য পুলিশের তরফে কি কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে সেই বিষয়ে জেনে নেন রাজ্যপাল। তবে শুধু ব্যারাকপুরের ঘটনার প্রসঙ্গ ই নয়, এই দিনের বৈঠকে উঠে আসে রাজ্যে একের পর এক রাজনৈতিক সংঘর্ষে প্রসঙ্গ। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয় এই দিনের বৈঠকে। যদিও পরে রাজ্যপাল  ট্যুইট করে বলেন "  রাজনৈতিক খুন বন্ধ হোক। টার্গেট করে খুন বন্ধ হোক। আমার উদ্বেগের কথা জানিয়েছি মুখ্য সচিবকে। আশা করি মুখ্যমন্ত্রী ব্যবস্থা নেবেন।"

অন্যদিকে, এ দিন সকালেই ডিজি এবং স্বরাষ্ট্রসচিবের থেকে কোন বার্তা না আসায় নিজের হতাশা প্রকাশ করে সকালেই একপ্রস্থ টুইট করেন রাজ্যপাল। টুইট করে তিনি বলেন " টার্গেট করে রাজনৈতিক খুন হচ্ছে সাংবিধানিক প্রধানের সর্তকতা স্বত্ত্বেও। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। স্বরাষ্ট্র সচিব এবং ডিজিপির থেকে কোন রেসপন্স পাইনি। মুখ্যমন্ত্রীকে বলেছিলাম জরুরী ভিত্তিতে কথা বলতে চাই। কোন উত্তর পাইনি।" তবে সকালের এই  ট্যুইটের কিছুক্ষণ বাদেই রাজভবনে পৌঁছে গিয়েছিলেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। অবশ্য এদিনের দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা রাজ্যপাল মুখ্যসচিব সাক্ষাতের পর রাজ্যপাল রাজ্য সংঘাতে কিছুটা প্রলেপ পড়ল নাকি সেই নিয়েই মূলত লক্ষ্য রাখছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Elina Datta
First published: